• বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৯:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
খাগড়াছড়িতে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল বেলকুচি উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজকে গড়ে তুলে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভুমিকা রাথতে হবে -বাবুল দাস কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত কাপ্তাই বিএসপিআই শিক্ষার্থীদের ওপর ফের হামলা, ৪ জন আহত এম কে বাঘাবাড়ী ঘি কোম্পানির উৎপাদনকারী মো: কামাল উদ্দিনের ১ বছরের কারাদণ্ড কোটা সংস্কারের দাবিতে  কাপ্তাই বিএসপিআই এ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

দীঘিনালায় উন্নয়ন বোর্ডের রাবার বাগান উজার

মোঃ মহাসিন মিয়া, নিজস্ব প্রতিনিধি (দীঘিনালা)  / ২৬২ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

লাকড়ি হিসেবে কাঠ যাচ্ছে তামাতচুল্লি ও ইটভাটায়

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার দীঘিনালা উপজেলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের রাবার বাগান উজার করে লাকড়ি হিসেবে বিক্রি করা হচ্ছে উপজেলার বিভিন্ন তামাকচুল্লি ও ইটভাটাতে। দীঘিনালায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের রোপনকৃত রাবার বাগান প্রকল্পে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, প্রভাবশালী একটি চক্র দীর্ঘদিন যাবৎ রাবার গাছ কেটে নিলেও এ বিষয়ে মুখ খুলছেনা কেহ। গাছ কাটার পর উন্নয়ন বোর্ডের রাবার বাগান প্রকল্পের জমিগুলো দখল করে নতুন করে বিভিন্ন ফলজ, ঝাড়ু ফুল ও সেগুন বাগান রোপণ করা হচ্ছে। প্রকাশ্যে বাগান উজারের বিষয়টি অবগত নন বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।

বুধবার ১৮ মে উপজেলার বোয়ালখালী ইউপি’র কড়ইতলী এলাকায় উন্নয়ন বোর্ডের রাবার বাগানে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় ৮-১০ জন শ্রমিক রাবার গাছ কেটে বিভিন্ন জায়গায় স্তুপ করছে। স্তুপ করা এ গাছ বিভিন্ন তামাকচুল্লি ও ইটভাটায় জ্বালানী লাকড়ি হিসেবে বিক্রি হয় বলে জানিয়েছেন শ্রমিকরা। গাছ কাটার ব্যাপারে জানতে চাইলে অবগত নই বলেও জানিয়েছেন তাঁরা।

বিভিন্ন ভাবে জানা যায়, রাবার বাগান উজারের অন্যতম কারণ হলো রাবার বাগান প্রকল্পের জমি দখল করে বিভিন্ন ফলজ, ঝাড়ু ও সেগুনবাগান করা। এঘটনায় রাবার বাগান প্রকল্পের সংশ্লিষ্টদের সম্পৃক্ততাও রয়েছে বলে ধারণা অনেকের।

এ বিষয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের জেলা কার্যালয়ের সুপারিটেনডেন্ট মো. জসিম উদ্দিন বলেন, রাবার বাগান উজারের বিষয়টি আমি অবগত নই। আমি ছুটিতে এলাকার বাইরে আছি। তারপরও বিষয়টি সরেজমিনে গিয়ে কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে ম্যানেজারকে বলা হবে।

পার্বত্যকন্ঠ/এম,এস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ