• সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০১:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কাপ্তাইয়ে ছাত্র ছাত্রীদের অংশগ্রহনে সচেতনতামূলক কর্মশালা  কাপ্তাইয়ে ৬৭৫ জন মৎস্যজীবিদের  মাঝে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ দুর্গম পাহাড়ি সড়কে মোটরসাইকেল চালকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সেনাবাহিনীর হেলমেট বিতরণ গাজায় ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নারী-শিশুসহ নিহত ৩৫ দুর্যোগ মোকাবেলায় দীঘিনালায় ২১ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত বান্দরবানে কেএনএফ সন্দেহে গ্রেপ্তার ৪ জন রিমান্ডে গুইমারায় ঘূর্ণিঝড় রেমালের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি এড়ানোর লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের সতর্ক বার্তা জারি কাপ্তাই লগগেইট জয়কালী মন্দিরে সংবর্ধিত হলেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে তলিয়ে গেলো সুন্দরবনের পর্যটনকেন্দ্র কাপ্তাইয়ে টিসিবির পণ্য পেল ১৬৭৭ জন ঘুমধুম সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে একজনের পা বিচ্ছিন্ন

রাজশাহীজুড়ে সংক্রমণ ছাড়াল ৮৫ হাজার

অলিউল্লাহ রাজশাহীঃ / ২৪০ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১

রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় প্রাণঘাতী করোনার সংক্রমণ ৮৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনা ধরা পড়েছে ৭৭১ জনের। এ নিয়ে সংক্রমণ দাঁড়িয়েছে ৮৫ হাজার ৩৫০ জনে।

একই দিনে বিভাগজুড়ে করোনায় প্রাণ গেছে ১৭ জনের। এ নিয়ে বিভাগে করোনায় প্রাণহানি দাঁড়াল ১ হাজার ৩৬১ জনে। এর আগে ২৭ জুলাই ৮০ হাজার, ১৯ জুলাই ৭৫ হাজার, ১৪ জুলাই ৭০ হাজার এবং ১০ জুলাই বিভাগজুড়ে ৬৫ হাজার ছাড়িয়ে যায় করোনার সংক্রমণ।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের ১২ এপ্রিল বিভাগে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। এর ১৪ দিনের মাথায় ২৬ এপ্রিল রাজশাহীতে করোনায় প্রথম প্রাণহানি ঘটে।

করোনা সংক্রমণের প্রায় তিন মাসে ২৯ জুন সংক্রমণ ৫ হাজারে পৌঁছায়। সংক্রমণ বাড়তে থাকায় একই বছরের ২০ জুলাই পৌঁছে যায় ১০ হাজারে। সংক্রমণ ২০ হাজার পৌঁছাতে সময় লাগে প্রায় দুই মাস (৩০ সেপ্টেম্বর)।

এর পর কিছুটা কমে সংক্রমণের মাত্রা। চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি সংক্রমণ পৌঁছায় ২৫ হাজারে। গত ঈদুল ফিতরের পর এই অঞ্চলে ফের বাড়তে শুরু করে করোনার সংক্রমণ।

এর পর ১৯ এপ্রিল ৩০ হাজার, ৩০ মে ৩৫ হাজার, ১০ জুন ৪০ হাজার, ১৭ জুন ৪৫ হাজার, ২৬ জুন ৫০, ৩০ জুন ৫৫ হাজার এবং ১০ জুলাই ৬৫ হাজার, ১৪ জুলাই ৭০ হাজার এবং ১৯ জুলাই ৭৫ হাজার ছাড়িয়ে যায়। পরের আট দিনের মাথায় বিভাগে করোনা সংক্রমণ ছাড়াল ৮০ হাজার।

সময় যতই গড়িয়েছে ধীরে ধীরে ততই ভয়ংকর হয়ে উঠেছে করোনা। বিভাগে প্রাণহানির সেঞ্চুরি পেরিয়েছে গত বছরের ৭ জুলাই। এর পর গত বছরের ২৯ আগস্ট প্রাণহানি আড়াই শ ছড়িয়ে যায়।

গত বছরের আগস্টের পর বিভাগে করোনার প্রকপ কিছুটা কম ছিল। প্রাণহানিও ঘটেছে কম। তবুও গত ১১ জুন প্রাণহানি ৫০০ ছাড়িয়ে যায়। এই অঞ্চলে মারাত্মক সংক্রামক করোনার ডেল্টা ধরন ছড়িয়ে পড়েছে। এতেই তরতরিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যু।

এদিকে, সোমবার ( ৩ আগস্ট) দুপুরে বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. নাজমা আক্তার স্বাক্ষরিত দৈনিক পরিসংখ্যানে জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় ৭৭১ জনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

এদের মধ্যে ২২৬ জন রাজশাহী জেলার বাসিন্দা। এছাড়া সিরাজগঞ্জে ১৭৯, পাবনায় ১৪৪, বগুড়ায় ৮৩, নাটোরে ৬৭, নওগাঁয় ৪৭, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৯ এবং জয়পুরহাটে ১৩ জনের করোনা ধরা পড়েছে।

এ পর্যন্ত বিভাগে করোনায় প্রাণহানি ঘটেছে ১ হাজার ৩৬১ জনের। এর মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় নাটোরে ৫ জন, রাজশাহীতে ৪ জন, বগুড়ায় ৩ জন, সিরাজগঞ্জে ৩ জন এবং নওগাঁয় ২ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এই দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ, জয়পুরহাট এবং পাবনা জেলায় করোনায় প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি।

এ পর্যন্ত বগুড়ায় ৫৭৩, রাজশাহীতে ২৫০, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৪০, নাটোরে ১২৩, নওগাঁয় ১২২, সিরাজগঞ্জে ৬৯, জয়পুরহাটে ৫০ এবং পাবনায় ৩৪ জন মারা গেছেন।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের হিসাবে, বিভাগে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬২ হাজার ৩১৩ জন। এর মধ্যে এক দিনে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮ জন। একই দিনে হাসপাতালে এসেছেন ১৫৩ জন। করোনায় সব মিলিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১২ হাজার ৪২৩ জন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ