• বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৯:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম
পানছড়িতে গুচ্ছগ্রামের গম না দেওয়াকে কেন্দ্র করে মারামারি, আহত ৩ কুকি চিনের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রাখাসহ পাহাড়ের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে পিসিএনপি’র সংবাদ সম্মেলন হালদার উজানে বালু উত্তোলনের দায়ে মানিকছড়িতে একজনকে জরিমানা সাজেকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষুধ বিতরণ করেছে সেনাবাহিনী সীমান্ত সড়কের রাস্তার পাশে পড়েছিল মরদেহ,উদ্ধার করলো পুলিশ নড়াইলে ইয়াবা ও গাঁজাসহ একজন গ্রেফতার মানিকছড়িতে তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থার আস্থা প্রকল্পের সভা অনুষ্টিত কাপ্তাই থানা পুলিশ এর পৃথক  অভিযানে চোলাই মদ ও গাজা সহ আটক : ৩ বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে পানছড়িতে বিশ্ব শান্তি কামনায় মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ শরিকদের সঙ্গে বসছেন প্রধানমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এমপির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলেন কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ এর নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৪২% উপরে

বান্দরবানে যৌথ অভিযানে গণগ্রেফতার ও হয়রানির প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে পিসিপির বিক্ষোভ মিছিল

আব্দুল মান্নান স্টাফ রিপোর্টার (খাগড়াছড়ি) / ১২০ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪

আব্দুল মান্নান স্টাফ রিপোর্টার (খাগড়াছড়ি)

বান্দরবানে যৌথ অভিযানে গণগ্রেফতার ও হয়রানির প্রতিবাদে এবং গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) খাগড়াছড়ি জেলা শাখা। ১৯ এপ্রিল শুক্রবার দুপুর ১২টায় খাগড়াছড়ি শহরে এ বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল শেষে স্বনির্ভর বাজারে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ সম্পাদক নরেশ ত্রিপুরা ও খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি শান্ত চাকমা এবং হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা আহ্বায়ক এন্টি চাকমা প্রমূখ।
বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, গত ২ ও ৩ এপ্রিল বান্দরবানের রুমা ও থানচি উপজেলায় নাটকীয় ব্যাংক ডাকাতি, পুলিশ-আনসার সদস্যদের অস্ত্র লুট ও ব্যাংক ম্যানেজারকে অপহরণের ঘটনা ঘটে। এর পর রুমা, থানচি, আলীকদম উপজেলায় যৌথবাহিনীর সাঁড়াশি অভিযানে ৬০ জনের অধিক বম সম্প্রদায়ের নারী-পুরুষকে গ্রেফতার করেছে। সর্বশেষ কেএনএফের সাথে সম্পৃক্ততার অভিযোগে রাঙামাটির বিলাইছড়িতে ৮ জন ত্রিপুরাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই গ্রেফতারের ঘটনায় মানুষের তীব্র প্রতিবাদে সেনাবাহিনী ৮ জনকে ছেড়ে দেয়।
বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামকে দেশবাসীর কাছে ভিন্নরূপে তুলে ধরতে সরকার তথা শাসকগোষ্ঠীর ষড়যন্ত্রের শেষ নেই। পার্বত্য চট্টগ্রামে যখন সেনাশাসনের প্রসঙ্গ নিয়ে প্রশ্ন ওঠে তখনই কৃত্রিম সমস্যা তৈরী করে যাচ্ছে। নিরীহ জনগণকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজি তকমা লাগিয়ে মিথ্যা মামলায় জেলহাজতে প্রেরণ করছে। সমাবেশ থেকে বক্তারা, বান্দরবানে ব্যাংক ডাকাতির ঘটনাকে কেন্দ্র করে যৌথবাহিনীর অভিযানের নামে সাধারণ বম ও ত্রিপুরা জাতিসত্তাদের গণহারে গ্রেফতার, হয়রানি ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদসহ অবিলম্বে তা বন্ধের দাবি জানান। এছাড়া গ্রেফতারকৃত সাধারণ নিরপরাধ লোকজনকে নিঃশর্ত মুক্তি ও ব্যাংক ডাকাতির ঘটনা নিরপেক্ষ তদন্তপূর্বক সিসি ফুটেজ দেখে ঘটনায় জড়িত দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে সরকার ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি বক্তারা আহ্বান জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ