• শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মাটিরাঙায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন ইউএনও আলীকদম সেনা জোন (৩১ বীর) কর্তৃক ২,৬৬,৬০৫ টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান নিজের কণ্ঠস্বর বিক্রি করে সফলতা অর্জন রামগড়ে বাগান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার রামগড় কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের জঙ্গলে পড়েছিল শ্রমিকের মরদেহ কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধ্বসের  আজ ৭ বছর : এখনোও ঝুঁকিতে বসবাস করছে বহু মানুষ রাজধানীর পল্টনে বহুতল ভবনে আগুন চট্রগ্রামে শপথ নিলেন রাজস্থলী উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা পাংশায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ৬ আসামি গ্রেপ্তার  রামগড় ৪৩ বিজিবির অভিযানে ভারতীয় মদ জব্দ কাপ্তাই নতুনবাজার আনন্দ মেলা গরুর বাজার: পাহাড়ি গরুর চাহিদা বেশী ক্রেতাদের কাপ্তাই সেনা জোনের উদ্যোগে  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান

পাহাড় জুড়ে বৈসাবী’র আমেজ ; বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় সম্প্রীতির বন্ধনে মিলেমিশে একাকার পার্বত্যবাসী

এম. সাইফুর রহমান (সজীব) / ৭৩ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

সাইফুর রহমান সজিব
পাহাড়ে বসবাসরত জনগোষ্ঠির ধর্মীয় ও সামাজিক উৎসব সাংগ্রাইং’কে স্বাগত জানিয়ে খাগড়াছড়ির গুইমারাতে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বিকালে গুইমারা রামসু বাজার থেকে শোভাযাত্রাটি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে আমতলী পাড়ায় গিয়ে শেষ হয়। সেখানে বিভিন্ন ধরনের ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলা ধুলার উদ্বোধন করা হয়।
খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত শোভাযাত্রায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রাইসুল ইসলাম।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে রিজিয়ন কমান্ডারের সহধর্মিনী ডাঃ শায়লা শারমিন, সিন্দুকছড়ি জোন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল সৈয়দ পারভেজ মোস্তফা, গুইমারা রিজিয়নের বিএম মেজর খালেদ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, গুইমারা উপজেলা চেয়ারম্যান মেমং মারমা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীব চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সবাইকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বৈসাবি ও বৈসাখী’র শুভেচ্ছা জানান প্রধান অতিথি। বলেন ধর্ম যার যার উৎসব সবার, তাই উৎসব পার্বণে সবাইকে মিলেমিশে সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়ার আহ্বান জানান প্রধান অতিথি।
মারমা সম্প্রদায়ের রীতি অনুযায়ী প্রতি বছর ১৪ এপ্রিল বর্ষ বর্ষণ করে পুরাতন বছরের দুঃখ গ্লানি মুছে নতুন বছরকে আবাহন জানানো হয়। পাড়া মহল্লায় নির্মিত মঞ্চের দুই পাশে সংরক্ষিত পানি দিয়ে যুবক যুবতীরা একে অপরকে পানি ছিটিয়ে পবিত্র করে নেয়। এভাবেই পুরাতন বছরকে বিদায় জানান মারমা সম্প্রদায়ের লোকজন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ