• শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০১:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: তাপদাহ উপেক্ষা করে প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটার দোয়ারে দোয়ারে  খাগড়াছড়িতে সার্বজনীন পেনশন স্কীম নিবন্ধনে শীর্ষে মাটিরাঙা খাগড়াছড়িতে নাশকতা: বিএনপির তিন নেতা গ্রেপ্তার দীঘিনালায় আনারস প্রতিকের সমর্থনে উঠান বৈঠক গুইমারায় রাতেও চলছে সর্বজনীন পেনশন স্কিম সম্পর্কে অবহিতকরণ সভা কাপ্তাই হ্রদ ভরাট : তদন্ত করে দোষীদের খুঁজতে বলল আদালত মোংলায় ব্র্যাকের উদ্যোগে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সমন্বয় সভা রামগড় তথ্য অফিসের আয়োজনে মহিলা সমাবেশ মানিকছড়ি তিনটহরী উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ গোয়ালন্দে বিআইডব্লিউটিসি’র ওজন স্কেলের সড়ক তৈরীতে অনিয়ম কাপ্তাই কর্ণফুলি নদীতে মৎস্য বিভাগের  অভিযানে ৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল এবং ২০ টি রিং জাল জব্দ লামায় জমি নিয়ে বিরোধে জের ধরে ১ জনকে কুপিয়ে খুন, আহত ৭

ঈদ উল ফিতর ও বৈসাবী উপলক্ষ্যে মাটিরাঙ্গায় সেনাবাহিনীর চিকিৎসা সেবা ও মানবিক সহায়তা

স্টাফ রিপোর্টার / ১২৮ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : সোমবার, ৮ এপ্রিল, ২০২৪

 

আর মাত্র দুই দিন পরেই মুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ‘ঈদ উল ফিতর’ ও পাহাড়ের অন্যতম সামাজিক উৎসব ‘বৈসাবী’। ঈদ ও বৈসাবীকে সামনে রেখে মাটিরাঙ্গার দুই শতাধিক দুস্থ, অসহায় ও নিম্নআয়ের মানুষ পেল উপহার সামগ্রী। পাশাপাশি দুর্গম জনপদের পাঁচ শতাদিক মানুষ পেল চিকিৎসা সহায়তা। গুইমারা রিজিয়নের তত্বাবধানে ১৫ ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারী মাটিরাঙ্গা জোন এ কর্মসুচীর আয়োজন করে।

সোমবার (৮ এপ্রিল) সকালের দিকে মাটিরাঙ্গা সরকারী ডিগ্রী কলেজ মাঠে এসব মানিবক ও ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন ২৪ আর্টিলারি ব্রিগেডের গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রাইসুল ইসলাম।

ঈদ উল ফিতর ও বৈসাবী উৎসবকে সামনে রেখে গুইমারা রিজিয়নের আওতাধীন এলাকার দুইশ জন অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারেকে উপহার সামগ্রী, ১০ পরিবারকে সোলার প্যানেল, বেকারত্ব দুরীকরণে ৫জনকে সেলাই মেশিন, অসহায় পরিবারের মাঝে ১০ বান্ডিল ঢেউটিন, চিকিৎসার জন্য আর্থিক অনুদান ও এতিমখানায় ১০টি সিলিং ফ্যান বিতরণ করেন গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রাইসুল ইসলাম।

এ সময় মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল মো: কামরুল হাসান, মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য হিরন জয় ত্রিপুরা ও মাটিরাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম এম জাহাঙ্গীর আলমসহ পদস্থ সামরিক কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

মাটিরাঙ্গা জোনের এরকম মানিবক কার্যক্রম ইতিবাচক সাড়া ফেলেছে মন্তব্য করে মাটিরাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এমএম জাহঙ্গীর আলম বলেন, ঈদের মাত্র দুইদিন আগে এমন সহায়থা নিম্নআয়ের মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়েছে। সেনাবাহিনীর মানবিক কর্মকান্ডে দুর্গম জনপদের সাধারন মানুষ আশার আলো দেখছে বলে মনে করেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য হিরন জয় ত্রিপুরা।

পার্বত্যাঞ্চলে পাহাড়ী-বাঙ্গালী জনগোষ্ঠির মাঝে ষৈৗহার্দ্যপুর্ণ সহাবস্থান ও সুসম্পর্ক বিদ্যমান রয়েছে মন্তব্য করে গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রাইসুল ইসলাম বলেন, যা সত্যইি প্রশংসার দাবদিার। সেনাবাহিনী শুরু থেকৈই বিভিন্ন রকমের মানবেতর চাহিদা পুরণের মাধ্যমে সাধারন মানুষের পাশে আছে। দুর্গম পাহাড়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি আর্তমানবতা সেবা ও দেশের যেকোন দূর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ