• শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১২:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: তাপদাহ উপেক্ষা করে প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটার দোয়ারে দোয়ারে  খাগড়াছড়িতে সার্বজনীন পেনশন স্কীম নিবন্ধনে শীর্ষে মাটিরাঙা খাগড়াছড়িতে নাশকতা: বিএনপির তিন নেতা গ্রেপ্তার দীঘিনালায় আনারস প্রতিকের সমর্থনে উঠান বৈঠক গুইমারায় রাতেও চলছে সর্বজনীন পেনশন স্কিম সম্পর্কে অবহিতকরণ সভা কাপ্তাই হ্রদ ভরাট : তদন্ত করে দোষীদের খুঁজতে বলল আদালত মোংলায় ব্র্যাকের উদ্যোগে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সমন্বয় সভা রামগড় তথ্য অফিসের আয়োজনে মহিলা সমাবেশ মানিকছড়ি তিনটহরী উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ গোয়ালন্দে বিআইডব্লিউটিসি’র ওজন স্কেলের সড়ক তৈরীতে অনিয়ম কাপ্তাই কর্ণফুলি নদীতে মৎস্য বিভাগের  অভিযানে ৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল এবং ২০ টি রিং জাল জব্দ লামায় জমি নিয়ে বিরোধে জের ধরে ১ জনকে কুপিয়ে খুন, আহত ৭

মায়ের অনুভূতি পাওয়া গেলো পুলিশ সুপার মুক্তা ধরের কাছে- প্রকাশ করলেন নারী পুলিশ সদস্যরা

মোঃ সালাউদ্দিন, বিশেষ প্রতিনিধি / ১৪৭ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২৪

 

মোঃ সালাউদ্দিন:- খাগড়াছড়ি জেলার পুলিশ সদস্যের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছে খাগড়াছড়ি জেলার পুলিশ সুপার মুক্তা ধর পিপিএম (বার)।

বুধবার (০৩ এপ্রিল) বিকালে খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশ লাইন্স ড্রিলসেডে পুলিশ সদস্যদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী তুলেদেন পুলিশ সুপার মুক্তা ধর । ঈদ মানে আনন্দ। ঈদের আনন্দ তখনই পরিপূর্ণ হয়, যখন আনন্দ সবার মাঝে ভাগ করে দেওয়া হয়। দীর্ঘ একমাস সিয়াম সাধনার পর উদযাপন করা হয় ঈদুল ফিতরের আনন্দ। আর তাই বাংলাদেশ পুলিশের খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশ সদস্যদের মাঝে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নেওয়ার জন্য খাগড়াছড়ি জেলার পুলিশ সুপার মুক্তা ধর, ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন।

এ সময় পুলিশ সুপার বলেন যে, পুলিশ সদস্যরা দিন-রাত জননিরাপত্তা ও ঈদে ঘরমুখী মানুষের কষ্ট লাঘব করার কাজে নিয়োজিত। সার্বক্ষনিক অক্লান্ত পরিশ্রম করে জেলার আইন-শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ সদস্যরা মাঠে সেবামুলক কাজ করে যাচ্ছে। দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর পুলিশ সদস্যরা যেন পবিত্র ঈদুল ফিতর আনন্দের সাথে উদযাপন করতে পারে তার জন্য আমাদের এই আয়োজন।আমরা যেমন আমাদের কাজগুলোকে ভাগ করে নিয়ে আমাদের দায়িত্ব সম্পন্ন করি, ঠিক তেমনি আমি চাই যে আমরা পুলিশ পরিবারের সকল সদস্য মিলে আমাদের আনন্দগুলোকে ভাগাভাগি করে নেই। তার ঐ প্রতীক স্বরূপ আজকের এই ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ। এ সময় পুলিশ সদস্যরা তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করতে যেয়ে বলেন যে, আমাদের অন্যতম একটি আনন্দের দিন হচ্ছে ঈদুল ফিতর। সবাই তার সর্বোচ্চ টা দিয়ে ঈদ উদযাপন করতে চায়। পুলিশ সুপারের কাছ থেকে ঈদ উপহার পেয়ে আমরা খুশিতে আত্মহারা।

এ ধরনের উপহার আমরা কোনদিন পায়নি। এই সামান্য উপহার আমাদের মাঝে কর্মচাঞ্চল্য, অপরাধ নিয়ন্ত্রণে অনেক ভূমিকা রাখবে বলে আশা করি। খাগড়াছড়ি জেলার বর্তমান পুলিশ সুপার মন থেকে চান যে আমরা যেন সর্বোচ্চ আনন্দটুকু উদযাপন করতে পারি। তারই প্রতীক স্বরূপ স্যার নিজে উপস্থিত হয়ে আমাদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন। আমরা সত্যিই অনেক আনন্দিত। এবং জেলার পুলিশ সুপারের প্রতি চির কৃতজ্ঞ। একজন নারী পুলিশ সদস্য তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে যেয়ে বলেন, পরিবারের সাথে ঈদ আনন্দ উদযাপন করার অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। কিন্তু পেশাদারিত্বের কারণে আমাদেরকে পরিবারের বাইরে থেকে ঈদ উদযাপন করতে হয়। খাগড়াছড়ি জেলার বর্তমান পুলিশ সুপার সবসময়ই আমাদের অন্তরের ভিতরে দুঃখটা বুঝতে পারেন। মা যেমন সন্তানের সুখ দুঃখগুলি নিজের করে নেন, তেমনি আমাদের এই নারী পুলিশ সুপার আমাদের সুখ দুঃখগুলিও নিজের করে নেন। আজ তিনি আমাদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করে তাই প্রমাণ করলেন। আমরা জেলার পুলিশ সুপার এবং পুলিশ সুপারের পরিবারের সর্বাঙ্গীণ মঙ্গল কামনা করি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস্)মোঃ জসীম উদ্দিন পিপিএম, সহকারী পুলিশ সুপার(এসএএফ) সৈয়দ মুমিদ রায়হান এবং পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা এবং সদস্যগণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ