• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৪:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঈদ উপলক্ষে হরিহরনগর ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফের চাল বিতরণ বাগেরহাটে বেআইনীভাবে প্রস্তুত হচ্ছে শামুকের খোলস পুড়িয়ে চুন ২ এপিবিএন, মেঘলা, বান্দরবান কর্তৃক একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার দেশ সেরা এটিও কাপ্তাইয়ের আশীষ কুমার আচার্য্য বাকী আছে ১দিন-গরু বাজারে ভীড় ক্রেতা ও বিক্রেতার শার্শা বেনাপোল বন্দরের ৫ দিন বন্ধ থাকবে আমদানি-রপ্তানি মোংলায় দিন দুপুরে দোকান ঘর ভাংচুর ও জবর দখলের চেষ্টা লংগদুতে বজ্রপাতে নিহত ৪ নিখোঁজ ১ মহালছড়ি সেনা জোনের উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ মাটিরাঙায় সেনাবাহিনীর বিশেষ মানবিক সহায়তা কাপ্তাই শিল্প এলাকা হতে উদ্ধার ১২ টি পান কৌড়ি  শেখ রা‌সেল এভিয়ারী এন্ড ইকো-পার্কে হস্তান্তর  আসছে সামনে ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির গরুর হাট

নবীনগরে সেতু নির্মান কাজে অনিয়মের অভিযোগ

সাধন সাহা জয় নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ / ১৪২ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : সোমবার, ৬ নভেম্বর, ২০২৩

সাধন সাহা জয়,নবীনগর(ব্রাহ্মনবাড়িয়া)প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌর এলাকার ১ নং ওয়ার্ড আলমনগরে ভাটানদীর উপর সেতু নির্মান কাজে অনিয়মের অভিযোগে পাওয়া গেছে।

স্থানীয়রা জানান, গত কয়েকদিন যাবৎ সেতুটির উপরের অংশের গার্ডারের ঢালাইয়ের কাজ চলছে। ঢালায়ে বালির পরিমান বেশি দিয়ে পাথর ও সিমেন্ট কম দিচ্ছেন ঠিকাদার। আমরা বিষয়টি উপস্থিত ইঞ্জিনিয়ারদের জানালেও তারা আমাদের কথা আমলে নিচ্ছে না। তারা আরো জানান, ঠিকাদার চালাকি করে বালির উপরে পাথর বিছিয়ে তারা বালু পাথর একসাথে করে রেখেছে। এভাবে সেতু নির্মান হলে এটি টেকসই হবে না।

গতকাল দুপুরে সরজমিনে গেলে দেখা যায়, ৪ কোটি ৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মানাধীন সেতু কাজ চলমান। বালি ও পাথর একসাথে রেখে সেতুর উপরের অংশের গার্ডারের ঢালাই করছেন নির্মাণ শ্রমিকরা। বালু ও পাথরের মধ্যে বালুর পরিমাণই বেশি দেখা যাচ্ছে। ঢালাই দেওয়ার মাঝ পথে সিমেন্ট শেষ হয়ে গেছে বলে জানান নির্মান শ্রমিকরা। কিছুক্ষণ ঢালাই কাজ বন্ধ থাকার পর সিমেন্ট এলে আবারো ঢালাই কাজ শুরু করেন শ্রমিকরা।

সরেজমিনে উপস্থিত থাকা উপসহকারী প্রকৌশলী মিজানুর রহমান স্থানীয়দের কাছে বলেন শুধু বালি দিয়ে কাজ ধরা আছে তাই গার্ডারের ঢালাইয়ের কাজ এই নিয়মে চলছে।

স্থানীয় ঠিকাদারের লোক ইমন জানান, আমরা নিয়ম মেনে সঠিক ভাবেই ঢালাই কাজ করছি। বালি পরিমান বেশি থাকলেও পাথর আমরা কম দিচ্ছি না। এখানে বালি পাথর মিক্স রয়েছে।

সেতুটির দায়িত্বরত ঠিকাদার লোকমান আহমেদকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেন নি।

নবীনগর উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার ইশতিয়াক হাসান জানান, গার্ডার ঢালাইয় নিয়ম মেনে পাথর মিক্সটিং না করলে গার্ডার ফেটে যাবে। কোন প্রকার সুযোগ নেই এখানে কোন কিছু কম দেয়ার। ঢালাই তদারকি করতে আমাদের জেলা অফিস থেকে ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করা হয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ