• বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৬:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
রাজধানীর পল্টনে বহুতল ভবনে আগুন চট্রগ্রামে শপথ নিলেন রাজস্থলী উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা পাংশায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ৬ আসামি গ্রেপ্তার  রামগড় ৪৩ বিজিবির অভিযানে ভারতীয় মদ জব্দ কাপ্তাই নতুনবাজার আনন্দ মেলা গরুর বাজার: পাহাড়ি গরুর চাহিদা বেশী ক্রেতাদের কাপ্তাই সেনা জোনের উদ্যোগে  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান শপথ নিলেন কাপ্তাই ও রাজস্থলী   উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা নওগাঁয় চাঞ্চল্যকর নাজিম হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার-২ মাদ্রাসা শিক্ষার ক্ষেত্রে বড় অবদান হলো সৎ ও আদর্শ নাগরিক গঠন- হুমায়ুন মোরশেদ খাঁন মা‌টিরাঙ্গায় পাচারকালে ট্রাক ভর্তি গম জব্দ, চালক আটক মানিকছড়িতে বাজার সেট উদ্বোধন বাড়ির পাশে আম গাছে ঝুলে আছে বৃদ্ধার লাশ, মৃত্যুর কারণ জানেনা কেউ

বস্তায় রাখা মাথার খুলি-হাড়গোড় কার জানাল পিবিআই

মাসুদ রানা, স্টাফ রিপোর্টার / ১২৮ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই, ২০২৩

ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার সরদারপাড়া কালীমন্দিরে পাশ থেকে বস্তায় রাখা মানুষের মাথার খুলি ও হাড়গোড় উদ্ধারে রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।‌ উদ্ধার হওয়া ওই হাড়গোড় মুরসালিন (১১) নামে এক শিশুর। সৎ বাবা মো. মিজানুর রহমানের হাতে নৃশংসভাবে খুন হয় ছেলেটি।

মুরসালিন মধুখালী উপজেলার আশাপুর এলাকার ইতি খাতুন ও মো. আশরাফুল শেখের ছেলে।

মঙ্গলবার (২৫ জুলাই) এ তথ্য নিশ্চিত করেন পিবিআই ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আবুল কালাম আজাদ।

তিনি জানান, এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত নিহত মুরসালিনের সৎ বাবা মো. মিজানুর রহমানকে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ২৩ জুলাই মাগুরর শ্রীপুর থানার ওয়াবদা মোড় এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়।

তাকে বিজ্ঞআদালতে সোপর্দ করা হলে আসামি মো. মিজানুর রহমান তারই সৎ ছেলে মুরসালিনকে হত্যার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় ৫নং আমলি আদালতের বিচারক মো ফরিদ উদ্দীনের কাছে জবানবন্দী দেন। সেখানেই বেড়িয়ে আসে আসল রহস্য।

জানা গেছে, ২০২২ সালের ২৬ ডিসেম্বর একটি সাদা প্লাস্টিকের বস্তায় মানুষের মাথার খুলিসহ ৭০ পিস হাড় উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর এ ঘটনায় মধুখালী থানার উপপরিদর্শক সৈয়দ তোফাজ্জেল হোসেন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালত অধিকতর তদন্তের জন্য মামলাটির তদন্তভার পিপিআই এর ওপর ন্যাস্ত করে।

তদন্তে অজ্ঞাতনামা হাড়গোড় এর ডিএনএ সঙ্গে মধুখালী উপজেলার আশাপুর এলাকার ইতি খাতুন ও মো. আশরাফুল শেখ ছেলে হারানোর জিডির সূত্র ধরে তাদের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় প্রমাণিত হয় যে, সেই হাড়গোড়গুলো মুরসালিনের। এ ঘটনার পর তথ্যপ্রযুক্তি সহায়তায় ঘটনার মূল অভিযুক্ত মুরসালিনের সৎ বাবা মো. মিজানুর রহমানকে ২৩ জুলাই মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানার ওয়াবদা মোড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পিবিআই।

পার্বত্যকন্ঠ নিউজ/এমএস 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ