• শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
আসছে সামনে ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির গরুর হাট কাপ্তাই থানা পুলিশ এর অভিযানে চট্টগ্রামের বাকলিয়া হতে পলাতক আসামি গ্রেফতার সিন্দুকছড়ি সেনা জোনের পক্ষ থেকে ঈদ উপহার ও মানবিক সহায়তা প্রদান ঈদুল আযহা উপলক্ষে কাপ্তাই জোনের ত্রাণ সামগ্রী সহায়তা প্রদান  মাটিরাঙায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন ইউএনও আলীকদম সেনা জোন (৩১ বীর) কর্তৃক ২,৬৬,৬০৫ টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান নিজের কণ্ঠস্বর বিক্রি করে সফলতা অর্জন রামগড়ে বাগান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার রামগড় কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের জঙ্গলে পড়েছিল শ্রমিকের মরদেহ কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধ্বসের  আজ ৭ বছর : এখনোও ঝুঁকিতে বসবাস করছে বহু মানুষ রাজধানীর পল্টনে বহুতল ভবনে আগুন চট্রগ্রামে শপথ নিলেন রাজস্থলী উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা

হাতিরঝিলের পাড় ভেঙ্গে পড়ায় উন্মুক্ত বিদ্যুৎ লাইন

প্রতিনিধির নাম / ১১৪ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৩

ভারী  বৃষ্টিতে হাতিরঝিলের উলন এলাকায় দেখা দিয়েছে ভয়াবহ পাড় ভাঙন। এতে ভূগর্ভস্থ এক লাখ বত্রিশ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ ক্যাবল উন্মুক্ত পড়ে আছে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে।

নগর স্থপতি ও পরিকল্পনাবিদরা বলছেন, ক্ষতিগ্রস্ত অংশ দ্রুত সংস্কার না হলে ঘটতে পারে বড় ধরনের বিপর্যয়।

রাজধানীর নান্দনিক স্থাপনা হাতিরঝিলের বেহাল দশা। ঝিলের উলন প্রান্তে ওভারপাসের প্রবেশ মুখে ফুটপাতে দেখা দিয়েছে ভাঙ্গন। কোরবানি ঈদের দিন থেকে টানা তিন দিনের ভারী বৃষ্টিতে ধসে গেছে পাড়। ভেঙে পড়েছে ফুটপাতের ইট কংক্রিট।

এই ফুটপাতের নিচ দিয়ে চলে গেছে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানির একলাখ বত্রিশ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইন। যা ভাঙনে উন্মুক্ত হয়ে পড়েছে। ভূগর্ভস্থ বৈদ্যুতিক ক্যাবলে দেখা দিয়েছে ফাটল।

স্থপতি ও নগরপরিকল্পনাবিদ ইকবাল হাবিব জানিয়েছেন, উচ্চক্ষমতার বৈদ্যুতিক সংযোগ লাইন এভাবে উন্মুক্ত থাকা চরম ঝুঁকির এবং বড় বিপর্যয়ের কারণ।

পুরো হাতিরঝিল জুড়ে নতুন করে চলছে ডিপিডিসির ভূগর্ভস্থ বৈদ্যুতিক লাইন স্থাপনের কাজ। এতে উন্মুক্ত অবস্থায় বালু রাখা হয়। বৃষ্টি হলে ঝিলের পানি নিষ্কাশনের নালার পথ বন্ধ হয়ে যায়।

রাজউক কর্তৃপক্ষ বলছে, বিদ্যুৎ বিভাগের সাথে কথা বলে ক্ষতিগ্রস্ত পয়েন্টে সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

উদ্বোধনের পর থেকে হাতিরঝিল ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব ছিল সেনাবাহিনীর হাতে। এক বছর ধরে এ দায়িত্ব রয়েছে রাজউকের হাতে।

পার্বত্যকনঠ নিউজ/এমএস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ