• শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
আসছে সামনে ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির গরুর হাট কাপ্তাই থানা পুলিশ এর অভিযানে চট্টগ্রামের বাকলিয়া হতে পলাতক আসামি গ্রেফতার সিন্দুকছড়ি সেনা জোনের পক্ষ থেকে ঈদ উপহার ও মানবিক সহায়তা প্রদান ঈদুল আযহা উপলক্ষে কাপ্তাই জোনের ত্রাণ সামগ্রী সহায়তা প্রদান  মাটিরাঙায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন ইউএনও আলীকদম সেনা জোন (৩১ বীর) কর্তৃক ২,৬৬,৬০৫ টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান নিজের কণ্ঠস্বর বিক্রি করে সফলতা অর্জন রামগড়ে বাগান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার রামগড় কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের জঙ্গলে পড়েছিল শ্রমিকের মরদেহ কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধ্বসের  আজ ৭ বছর : এখনোও ঝুঁকিতে বসবাস করছে বহু মানুষ রাজধানীর পল্টনে বহুতল ভবনে আগুন চট্রগ্রামে শপথ নিলেন রাজস্থলী উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা

স্বপ্নভঙ্গ, কুয়েতের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত লড়েও হারল বাংলাদেশ

প্রতিনিধির নাম / ২২৩ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শনিবার, ১ জুলাই, ২০২৩

স্বপ্নভঙ্গ জামাল ভুঁইয়াদের। চোখে চোখ রেখে লড়াই করেও শেষ পর্যন্ত অতিরিক্ত সময়ের ইনজুরি টাইমের গোলে কুয়েতের কাছে হার মানতে হলো। সেই সঙ্গে ১৮ বছর বাদে ফের সাফ ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন চুরমার হয়ে গেল। ৩৭ বছর আগের হারের মধুর প্রতিশোধ নেওয়ার সুযোগ অধরাই থেকে গেল।

শনিবার বিকেলে বেঙ্গালুরুর কান্তিরাভা স্টেডিয়ামে নির্ধারিত সময়ে শক্তিশালী কুয়েতকে রুখে দিয়েছিল হ্যাভিয়ের কাবরেরার ছেলেরা। প্রথমার্ধের শুরুতেই গোল করার দারুণ সুযোগ পেয়েছিলেন বাংলাদেশের শেখ মোরসালিন। রাকিবের বাড়ানো নিচু ক্রস বক্সের মধ্যে পেয়েছিলেন তরুণ স্ট্রাইকার। কিন্তু গোলকিপারের গায়ে মেরে প্রথম সুযোগটি নষ্ট করেছেন তিনি। ফিরতি বল দ্বিতীয় দফায় কাছে পেলেও তা ঠিকমতো আয়ত্তে নিতে পারেননি। সাত মিনিটের মাথায় কুয়েতও গোলের সহজ সুযোগ মিস করে। কর্নার থেকে পাওয়া বল বাংলাদেশের জালে প্রায় গলিয়ে দিয়েছিলেন কুয়েতের এক ফুটবলার। কিন্তু ইসা ফয়সাল গোললাইন থেকে বল ফেরত পাঠিয়ে দলের পতন রোধ করেন। ২৯ মিনিটে কুয়েতের আল রশিদির শট বাংলাদেশের গোলরক্ষক জিকো অনেকটা লাফিয়ে প্রতিহত করেন। ৩০ মিনিটের মাথায় মোরসালিনের বাড়ানো বল গোলে ঠেলতে পারেননি রাকিব। ৪০ মিনিটে আল রাশিদির শট ফের ঝাঁপিয়ে বাঁচান বাংলাদেশের গোলরক্ষক। প্রথমার্ধের খেলা গোলশূন্যভাবেই শেষ হয়।

দ্বিতীয়ার্ধে শুরু থেকেই জয়ের জন্য ঝাঁপায় কুয়েত। একের পর এক আক্রমণ শানাতে থাকেন পর্তুগিজ কোচ রুই ফার্নান্দো বেন্তোর ছেলেরা। কিন্তু বাংলাদেশের গোলরক্ষক জিকো দুর্ভেদ্য প্রহরী হয়ে দাঁড়ান। আল রাশিদি, আল ব্লাউশির সামনে চিনের প্রাচীর হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। দ্বিতীয়ার্ধেও কুয়েতকে রুখে দিয়ে ম্যাচ অতিরিক্ত সময়ে নিয়ে গিয়েছিলেন হ্যাভিয়ের কাবরেরার ছেলেরা। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। অতিরিক্তি সময়ের প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে কাঙ্খিত গোল পেয়ে যায় বেন্তোর ছেলেরা। ১০৫ মিনিটে আল ব্লাউসির গড়ানো শট বাংলাদেশের সেন্টার-ব্যাক তপু বর্মণের দুই পায়ের ফাঁক গলে জালে জড়ায়। ওই গোলেই সাফের ফাইনালে যাওয়ার ছাড়পত্র পেয়ে গিয়েছে কুয়েত।

পার্বত্য কন্ঠ নিউজ/রনি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ