• সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম
গাজায় ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নারী-শিশুসহ নিহত ৩৫ দুর্যোগ মোকাবেলায় দীঘিনালায় ২১ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত বান্দরবানে কেএনএফ সন্দেহে গ্রেপ্তার ৪ জন রিমান্ডে গুইমারায় ঘূর্ণিঝড় রেমালের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি এড়ানোর লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের সতর্ক বার্তা জারি কাপ্তাই লগগেইট জয়কালী মন্দিরে সংবর্ধিত হলেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে তলিয়ে গেলো সুন্দরবনের পর্যটনকেন্দ্র কাপ্তাইয়ে টিসিবির পণ্য পেল ১৬৭৭ জন ঘুমধুম সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে একজনের পা বিচ্ছিন্ন গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রদলের সা: সম্পাদক কে হত্যার চেষ্টা চিকিৎসক ও নার্স সংকটে পানছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কাপ্তাই জেলা নৌ স্কাউটসের ১১ জন স্কাউটস এর  প্রেসিডেন্ট’স স্কাউট অ্যাওয়ার্ড অর্জন 

লংগদু চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৬০১ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২০

রাঙামাটি পার্বত্য জেলার লংগদু উপজেলায় ভাসান্যাদম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হযরত আলীর বিরুদ্ধে বরাদ্ধকৃত প্রকল্প সমূহ বাস্তবায়ন না করে অর্থ উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে।

আত্মসাৎকৃত প্রকল্পগুলোর মধ্যে ২০১৭-১৮অর্থ বছরে এলজিএসপি ২/৩এর আওতায় রাঙাপানি ছড়ার রুহুল আমিনের বাড়ি হতে কাশেমের বাড়ি পর্যন্ত ৯০হাজার টাকার ইট সলিং রাস্তা প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হয়েছে দাবী করা হলেও এসব রাস্তা এখনো কাঁচা অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

একই অর্থবছরে এলজিএসপি২/৩ এর আওতায় আলী আজমের বাড়ি হতে তাজুর বাড়ি পর্যন্ত ইট সলিং রাস্তা ১লাখ ৪৮হাজার টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন হলেও এ রাস্তাটি এখনো কাঁচা রাস্তা রয়ে গেছে।

এ বিষয়ে আলী আজম বলেন, শুনেছি রাস্তাটি ইট সলিং করা হবে কিন্তু করা হয়নি। এ রাস্তা দিয়ে চেয়ারম্যান হযরত আলী যাতায়াত করে। ২০১৭-১৮সালে করার কথা ছিল কিন্তু এখন ২০২০সাল।

এছাড়া চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ২০১৮-১৯অর্থবছরে এডিপি প্রকল্পের আওতায় খাগড়াছড়ি, চাল্যাতলি, ঘনমোড় এলাকার দরিদ্র কৃষকদের মাঝে ফলজ চারা বিতরণের নামে ১লাখ টাকা এবং একই প্রকল্পের ২০১৯-২০অর্থবছরে চাইল্যাতলি ও খাগড়াছড়ি এলাকায় দুস্থ মহিলাদের সেলাই মেশিন বিতরণ বাবদ ২লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভাসান্যাদম ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য মো ইসমাইল জানান, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগগুলো সত্য।

উক্ত প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন না করে টাকা উত্তোলন করে আত্মসাত করা হয়েছে। কোথাও কোথাও একটি প্রকল্পের এলাকায় এডিপি ও এলজিএসপি দুটো প্রকল্প বাস্তবায়ন দেখানো হয়েছে। বাস্তবে এগুলো কোনটি বাস্তবায়ন হয়নি।
তদন্ত করলে অনিময় বেড়িয়ে আসবে।

অভিযোগের বিষয়ে ভাসান্যাদম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হযরত আলী বলেন, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো ষড়যন্ত্রের অংশ। নির্বাচনকে সামনে রেখে আমার বিরুদ্ধে দুর্নাম ছড়ানোর অপচেষ্টা করছে একটি পক্ষ। যেসব প্রকল্পের অনিয়মের কথা বলা হচ্ছে সেগুলো বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

প্রকল্পের বিপরীতে যে পরিমাণ অর্থ বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে পাহাড়ের ভৌগলিক অবস্থাগত কারণে সে বরাদ্ধ দিয়ে পুরো প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ