• সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৭:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কাপ্তাইয়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয়  ফুটবল টুর্ণামেন্ট শুরু  কাপ্তাই বন বিভাগের পক্ষ হতে শিক্ষার্থীদের গাছের চারা বিতরণ  কাপ্তাই রাহাত স্টোরে ৩৫ প্রকার চা এবং হরেক রকম পান পাওয়া যায়  খাগড়াছড়ি গুইমারা থানা পুলিশের অভিযানে গাজাসহ আটক-২ রাজস্থলীতে উৎসব মুখর পরিবেশে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন কাপ্তাইয়ের  শিলছড়িতে সামাজিক শৃঙ্খলা কমিটি গঠন  বীর মুক্তিযোদ্ধার পরলোকগমন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সতকার

রামগড় চান্দ পাড়া সরকারি প্রাঃ বিদ‍্যালয়ের নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে ভবন নির্মাণ

মোঃ মাসুদ রানা রামগড়(খাগড়াছড়ি)প্রতিনিধিঃ / ১৮৫ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শনিবার, ১০ জুন, ২০২৩

খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলার ১নং ইউনিয়নের অধিনস্থ চাঁন্দপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চারতলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণ কাজের অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে, সরেজমিনে গিয়ে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে ঢালাই ও গাঁথুনি কাজ করতে দেখা গেছে মিস্ত্রিদের। উপস্থিত ছিলেন না ইঞ্জিনিয়ার এবং ঠিকাদারের কোনো লোকজন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর রাঙ্গামাটি জোন থেকে রামগড় উপজেলার ১নং ইউনিয়নের চাঁন্দপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চারতলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণকাজ করা হয়।মেসার্স ফর্মা এন্টার প্রাইজ নামে একটি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান নির্মাণ কাজের দায়িত্ব পায় এবং লিটন মাষ্টার ও ফোরম‍্যান চিংকু নেতৃত্বে তিন মাস আগে স্কুল ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। স্থানীয় লোকজন ও স্কুল ম্যানেজিং কমিটি জানায়, ঠিকাদার স্কুলের কাজের শুরু থেকেই অতি নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে ভবন নির্মাণ কাজ করছে।
এছাড়াও এলাকাবাসী আরো বলেন সিডিউল অনুযায়ী কাজ হচ্ছে না, স্কুল ম‍্যানেজিং কমিটির লোকজন নিম্নমানের ইটের বিষয়ে সহকারী ইঞ্জিনিয়ারকে বললে তিনি ঐসব নিম্নমানের ইট দিয়ে কাজ না করতে নিষেধ করেন।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক বলেন , আমি স্কুল ভবন নির্মাণের বিষয়ে কিছু জানিনা এটা কন্ট্র্যাক্টর জানে। স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি খোরশেদ আলম,সহসভাপতি তারা মিয়া সহ দায়িত্ব প্রাপ্ত অনেকেই বলেন, আমরা যতবারই কাজ দেখতে গিয়েছি, একবার ও সেখানে ইঞ্জিনিয়ার বা ঠিকাদারের কোন লোক পাইনি। নির্মাণের ইট-খোয়া দেখলাম, কোনটাই ভাল না। বার বার নিষেধ করলেও ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কোন তোয়াক্কা না করেই নিম্নমানের জিনিস পত্র দিয়ে কাজ চলমান রেখেছে, সরকারি কাজে এমন অনিয়ম বন্ধে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে নজরধারী বাড়ানোর প্রয়োজন। এ বিষয় জানতে চাইলে, মেসার্স ফর্মা এন্টারপ্রাইজের মালিক পক্ষের দায়িত্বে থাকা লিটন মাষ্টার কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি, তবে কাজের দায়িত্ব প্রাপ্ত ফোরম‍্যান চিংকু চাকমা মুঠোফোনে হুমকি স্বরূপ বলেন কাজের মান খারাপ হলে ইঞ্জিনিয়ার বলবে, আপনাকে কে বলেছে এসব নিয়ে আমাকে প্রশ্ন করতে।
আমাকে চেনেন, আমি তিন পার্বত্য জেলার সব স্থানে কাজ করি।

রামগড় উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী মো.মাসুদ রানা বলেন, সরেজমিনে গিয়ে দেখতে পেলাম ইট গুলো নিম্নমানের তাই এ ইট স্কুলের কাজে ব‍্যবহার না করতে ঠিকাদারের লোকজনকে নিষেধ করা হয়েছে।
রামগড় উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিডি কর্মকর্তা) মোহাম্মদ নাইমুল ইসলাম জানান, বিষয়টি দেখা হচ্ছে আর নিম্নমানের কোন মালামালই সরকারি স্কুল ভবন নির্মাণকাজে ব‍্যবহার করা যাবে না।যে ইটের ছবি দেখেছি এটা ব‍্যবহারের উপযোগী নয়।

পার্বত্যকন্ঠ নিউজ/এমএস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ