• বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বেলকুচি উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজকে গড়ে তুলে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভুমিকা রাথতে হবে -বাবুল দাস কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত কাপ্তাই বিএসপিআই শিক্ষার্থীদের ওপর ফের হামলা, ৪ জন আহত এম কে বাঘাবাড়ী ঘি কোম্পানির উৎপাদনকারী মো: কামাল উদ্দিনের ১ বছরের কারাদণ্ড কোটা সংস্কারের দাবিতে  কাপ্তাই বিএসপিআই এ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কাপ্তাইয়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয়  ফুটবল টুর্ণামেন্ট শুরু 

লামায় বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস পালিত

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ব্যুরো প্রধান, বান্দরবান: / ১৮০ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বুধবার, ৩১ মে, ২০২৩

ভর্তুকির সার ব্যবহার বন্ধ করা গেলে তামাক চাষ অর্ধেকে নেমে আসবে

লামায় বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। বিকল্প খাদ্য ফসল উৎপাদন ও বিপণনের সুযোগ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও টেকসই-পুষ্টিকর ফসল চাষে তামাক চাষিদের উৎসাহিত করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে ‘গ্রো ফুড, নট টোব্যাকো’। বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশে দিবসটি উদযাপিত হতে যাচ্ছে ‘তামাক নয়, খাদ্য ফলান’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে। বুধবার (৩১ মে) বেলা ১১টায় লামা উপজেলা পরিষদ হলরুমে এই আলোচনা সভা এবং শেষে এক র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়

বক্তারা লামা উপজেলার তামাকের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন, মৌখিক ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম দিয়ে দীর্ঘদিন তামাক নির্মূল করতে কাজ করা হয়েছে। আগামীতে প্রয়োজন তামাক চাষ নিরুসাহিত প্রশাসনকে কঠোর হতে অনুরোধ করেন বক্তারা। ১৯৯১ সাল থেকে লামায় স্বল্প পরিসরে তামাক চাষ শুরু হয়। অথচ ৩৩ বছরের ব্যবধানে এখন আবাদী ৮০ শতাংশ জমি তামাকের দখলে। তামাকের এই আগ্রাসন বন্ধ করা না গেলে এইসব দিবস পালন করে লামা উপজেলা তথা দেশকে তামাকমুক্ত করা যাবেনা। এছাড়া সরকারের ভর্তুকিকৃত সার (ইউরিয়া, এমওপি ও টিএসপি) যাচ্ছে তামাকে। যার সূফল ভোগ করছে তামাক কোম্পানিরা। তামাক চাষ নিরুসাহিত করতে ভর্তুকি সার তামাকের ব্যবহার বন্ধ করতে জোর দেয় বক্তারা। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা বলেন, প্রয়োজনে তামাক চাষ ও ফসল চাষের জমি আলাদা করে দিতে হবে। তাতে কিছুটা হলেও তামাক চাষ নিয়ন্ত্রণে আসবে।

লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মোস্তফা জাবেদ কায়সার বলেন, সরকার তামাক চাষ বন্ধে কোন আইন করেনি তবে তামাক চাষ কমাতে নিরুসাহিত করতে বলা হয়েছে। কৃষি অফিসের প্রত্যেক্ষ-পরোক্ষ সহায়তায় চাষীরা ক্ষতিকর তামাক চাষ বাদ দিয়ে ফসলে ঝুঁকবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। বিগত দিনের ন্যায় সরকারি ও নদী-খাল-ঝিরির পাড়ের জমিতে তামাক চাষ করতে দেয়া হবেনা।

তামাকমুক্ত দিবসের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মোস্তফা জাবেদ কায়সার। অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জাহেদ উদ্দিন, মিলকী রাণী দাশ, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জুবাইরা বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কান্তি দাশ সহ প্রমূখ। এছাড়া সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ বিশ্বের ৯ম বৃহত্তম তামাক ব্যবহারকারী দেশ। দেশের ৩৫ দশমিক ৩ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক জনগোষ্ঠী তামাক ব্যবহার করেন। তামাক ব্যবহারজনিত রোগে বছরে ১ লাখ ৬১ হাজার মানুষ প্রাণ হারায়।

পার্বত্যকন্ঠ নিউজ/এমএস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ