• বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
সাজেকে বিদেশি মদসহ আটক ৫ গুইমারায় সড়ক দুর্ঘটনায় নারী ও শিশুসহ আহত ২০ আশংকা জনক-২ খাগড়াছড়িতে মোটর সাইকেল এ প্রাণ গেলো যুবকের ঈদের ছুটিতে আলুটিলা সহ বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র গুলোতে বেড়েছে পর্যটক সমাগম বাঘাইছড়িতে আঞ্চলিক দলের গোলাগুলিতে শান্তি পরিবহনের সুপারভাইজার নিহত ঈদের দ্বিতীয় দিনেও চলছে পশু কোরবানি ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে রাঙামাটিতে গোস্ত বিতরণ পিসিসিপি’র উত্তরণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রাজবাড়ীতে পূর্বপাড়ার অসহায় ও সুবিধা বঞ্চিত দুই হাজার নারী পেলো কোরবানির মাংস যৌতুকের দ্বায়ে গ্রেফতার রাঙ্গামাটি ব্লাড ব্যাংক এর প্রতিষ্ঠাতা রাশেদ মানিকছড়ি ডিসি পার্কে পানিতে ডুবে পর্যটকের মৃত্যু! ঈদুল আজহা উপলক্ষে ত্রানসামগ্রী বিতরণ করেছে দীঘিনালা জোন গুইমারায় ১৯৮লিটার চোলাই মদসহ আটক-১

বেড়িবাঁধের সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ

হ্যাপী করিম, স্টাফ রিপোর্টার (মহেশখালী) কক্সবাজার: / ১৭৪ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৩ মে, ২০২৩

মহেশখালী উপজেলায় বেড়িবাঁধের সরকারি খাস জায়গা বেআইনিভাবে দখল করে বাড়িঘর ও দোকানপাট নির্মাণ করলেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।

সম্প্রতি উপজেলা কুতুবজোম ইউনিয়নের ডেম্বুনিয়া এলাকায় বেড়িবাঁধে কুতুবজোম মৌজার ১নং খাস খতিয়ানের ভূমিতে এলাকায় সরেজমিন বেড়িবাঁধ গেলেই দখলের মহোৎসব, বাড়িঘর ও দোকানপাট নির্মাণের দৃশ্য চোখে পড়বে। বেশিরভাগ ইট-বালু ব্যবহার করে স্থায়ী ঘরবাড়ি করছেন।

এদিকে দখলকারী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বেড়িবাঁধের জায়গা অনেকেই দখল করে ঘরবাড়ি করছে। আমিও জায়গা দখল করে দোকান করেছি। তবে প্রশাসন নির্দেশ দিলে আমি দোকানঘর ভেঙে ফেলবো।

এ ব্যাপারে কুতুবজোম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট শেখ কামাল বলেন, সরকারি কোনো নিয়মনীতির বাইরে কোনো কাজ আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। বিষয়টি তদন্তপূর্বক সরকারি জায়গা অবৈধভাবে দখলদারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এএফএম শামীম জানান, দোকান ঘর নির্মাণ করার ব্যাপারে কিছুই জানি না। কাউকে অনুমতি দেয়ার প্রশ্নই উঠে না। সরকারি জায়গা লিজ নেয়ার পরই জায়গার দখল বুঝিয়ে দেয়া হয়। সরকারী জায়গায় লিজ ব্যতীত কেউ নির্মাণ কাজ করতে পারবে না। এ ব্যাপারে আমি খবর নেয়ার জন্য ইউনিয়নের উপসহকারী ভূমি কর্মকর্তা’কে নির্দেশ দিয়েছি, প্রয়োজনীয় আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা।

পার্বত্যকণ্ঠ নিউজ/এমএস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ