• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৫:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঈদ উপলক্ষে হরিহরনগর ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফের চাল বিতরণ বাগেরহাটে বেআইনীভাবে প্রস্তুত হচ্ছে শামুকের খোলস পুড়িয়ে চুন ২ এপিবিএন, মেঘলা, বান্দরবান কর্তৃক একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার দেশ সেরা এটিও কাপ্তাইয়ের আশীষ কুমার আচার্য্য বাকী আছে ১দিন-গরু বাজারে ভীড় ক্রেতা ও বিক্রেতার শার্শা বেনাপোল বন্দরের ৫ দিন বন্ধ থাকবে আমদানি-রপ্তানি মোংলায় দিন দুপুরে দোকান ঘর ভাংচুর ও জবর দখলের চেষ্টা লংগদুতে বজ্রপাতে নিহত ৪ নিখোঁজ ১ মহালছড়ি সেনা জোনের উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ মাটিরাঙায় সেনাবাহিনীর বিশেষ মানবিক সহায়তা কাপ্তাই শিল্প এলাকা হতে উদ্ধার ১২ টি পান কৌড়ি  শেখ রা‌সেল এভিয়ারী এন্ড ইকো-পার্কে হস্তান্তর  আসছে সামনে ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির গরুর হাট

মহালছড়িতে দূর্গোৎসবকে ঘিরে মন্দিরে চলছে শেষ প্রস্তুতি

রিপন ওঝা, নিজস্ব প্রতিবেদক মহালছড়িঃ / ২৪৫ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শনিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২৩

রিপন ওঝা, মহালছড়ি

খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলার সদর ও মাইসছড়ি পূজামণ্ডপে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শরৎ ঋতুতে শারদীয় দুর্গা পূঁজা উপলক্ষে চলছে নানা আয়োজনের শেষ পর্যায়ের ব্যাপক প্রস্তুতি।

মহালছড়ি দক্ষিণা কালী মন্দির কর্তৃক উদযাপন পরিষদের সভাপতি রনজিৎ দাশ ও সাধারণ সম্পাদক অন্তু শীল, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রান্ত সেন(বাপ্পা)সহ নানা প্রকৃতির উপকমিটি ঘোষিত হয় এবং মাইসছড়িতেও দূর্গা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি তপন দাশ ও সাধারণ সম্পাদক আপন বর্মণ।

ধর্মীয় পঞ্জিকা মতে জানা গেছে, এ বছর দশভুজার আগমন ও গমন দুই-ই হবে ঘোটকে(ঘোড়া) চড়ে। ১৪ অক্টোবর হবে মহলয়া। আগামী ২০ অক্টোবর মহাষষ্ঠী, ২১ অক্টোবর মহাসপ্তমী, ২২ অক্টোবর মহাষ্টমী, ২৩ অক্টোবর মহানবমী ও ২৪ অক্টোবর বিজয়া দশমীর পূঁজা অনুষ্ঠিত হবে।

উভয় মন্দির ঘুরে দেখা গেছে, মন্দিরগুলোতে খঁড় ও মাটি দিয়ে পরম যত্নে গড়ে উঠছে প্রতিমা। এরপর দোঁ-আঁশ মাটির কাজ শেষে রং তুলির টানে প্রতিমাগুলো ফুটিয়ে তুলছেন প্রতিমা শিল্পীরা। নাওয়া-খাওয়া আর ঘুম বাদ দিয়ে কাজ শেষ করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। দেবী দূর্গার সাথে লক্ষী, গনেশ, কার্তিক ও সরস্বতির পাশাপাশি ধর্মীয় দৃশ্যপট ফুটিতে তুলতে তৈরী করা হচ্ছে অন্যান্য প্রতিমা।

আয়োজক কমিটির সভাপতি রনজিৎ দাশ জানান এ বছর মহাধুমধামে শারদীয় মহৌৎসব দূর্গাপূঁজা-২০২৩ আয়োজন করা হচ্ছে। প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও জাঁক-জমকভাবে পূঁজা আয়োজন করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পূজামন্ডপ ও মন্দির, দর্শনার্থীদের জন্য স্বেচ্ছাসেবকসহ সিসি ক্যামেরার আওতায় মন্দিরগুলো আনা হচ্ছে। মহালছড়িতে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় প্রতিবছরের ন্যায় ২০২৩ সালেও পর্যাপ্ত ধর্মীয় বিশ্বাসের কৃষ্টি সংস্কৃতি কালচার ধর্মীয় অনুশাসন মেনেই পুরোহীতগণ পূজার কার্যাদি সম্পন্ন করবেন। ডেকোরেশনের পক্ষ থেকে উৎসব অঙ্গন পর্যাপ্ত লাইটিং, গেট নির্মাণসহ স্টেজ নির্মাণসহ সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ চলছে। সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পূর্ব হতে আমাদের মহালছড়ি দক্ষিণা কালী মন্দিরে নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরাসহ নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক থাকবে। আমি আশা করছি মহালছড়িতে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী প্রতিবছরের ন্যায় ২০২৩ সালেও স্থানীয় সকল জনগোষ্ঠী উপস্থিত থেকে উৎসব অঙ্গন পরিপূর্ণ উৎসবমুখর করে তুলবে।

দূর্গাপূজার প্রতিদিনের আনুষ্ঠানিক ধর্মীয় সূচী সম্পর্কে উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অন্তু শীল হতে জানা যায়, মহালয়ার ৫ম দিনের মধ্যে মহাপঞ্চমী পরের দিনেই ২ কার্ত্তিক ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, মহাষষ্ঠীতে ২০অক্টোবর শুক্রবার, দেবীর বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাস, ৩ ঘটিকায়: ধর্মীয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্জলন ও বস্ত্র বিতরণ রয়েছে। মহাসপ্তমী শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায় বিনামূল্যে রক্তের গ্রপ নির্ণয়, বিকাল ৩ ঘটিকায় শ্রীমদ্ভগবদগীতা পাঠ প্রতিযোগিতা, ধর্মীয় কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে, মহাঅষ্টমী ২২ অক্টোবর রবিবার, বিকাল ৩ ঘটিকায় শ্রী শ্রী চন্ডীপাঠ প্রতিযোগিতা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে, মহানবমী ২৩অক্টোবর সোমবার, সন্ধ্যা ৬ঘটিকায় আরতি ও ধুনুচি নাচের প্রতিযোগিতা রয়েছে। এছাড়াও বিজয়া দশমী ৬কার্ত্তিক ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৪অক্টোবর মঙ্গলবার, সকাল ৯ঘটিকায় সনাতনী সমাজের সকল বয়সীদের সাড়ম্বরে একত্রিত হয়ে পুষ্পাঞ্জলিগ্রহণ সহ সকল মাঙ্গলিক কার্যক্রম সম্পন্ন করে সকল আয়োজনের প্রতিযোগীদের মাঝে সম্মানিত অতিথিদের উপস্থিতিতে পুরষ্কার বিতরণের কর্মসূচী রয়েছে। বিজয়া দশমীর মহামিলন ঘটিয়ে শ্রী শ্রী শারদীয়া দুর্গাদেবীর বিসর্জন যাত্রার প্রস্তুতি নেয়া হবে।

ইতিমধ্যে এ পূঁজাকে কেন্দ্র করে আসন্ন শারদীয় দূর্গোসব- ২০২৩ সুষ্ঠু, সুন্দর ও আনন্দঘন পরিবেশে উদযাপনের লক্ষ্য জেলা প্রশাসক, পূঁজা উদযাপন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীসহ থানা পুলিশ, সকল গোয়েন্দা সংস্থা সামগ্রিক বিষয়ে ব্যাপক তৎপর রয়েছে।

মহালছড়ি দক্ষিণা কালী মন্দির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রতন কুমার শীল বলেন, আমাদের এলাকায় সনাতন সম্প্রদায়সহ সকল ধর্ম বর্ণের গোত্রের মানুষজন শান্তিপূর্ণসহ সহাবস্থান বসবাস করছেন। তাই তো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন “ধর্ম যার যার উৎসব সবার ” এমন নীতিতে আমরা উপজেলা বাসী ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠানে সনাতন ও সকল সম্প্রদায়ের মানুষ কাঁধে কাঁধ মিলেয়ে উৎসব উদযাপনে সামিল হয়ে থাকে। উভয় পূজাঙ্গনে আমন্ত্রিত অতিথিদের পদচারণায় উৎসব অঙ্গন মুখর পরিবেশে পূঁজা অনুষ্ঠিত হবে এমন আশা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ