বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:১০ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

রাবার বাগান কর্তন: পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

মোঃ মহাসিন মিয়া, নিজস্ব প্রতিনিধি (দীঘিনালা) 
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৭ আগস্ট, ২০২২
  • ৭০ জন পড়েছেন

উপজেলার মেরুং ইউপি অধীনস্থ রশিক নগর গুলছড়ি এলাকায় একটি রাবার বাগান কর্তনকে কেন্দ্র করে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ উঠেছে।

তাঁদের মধ্যে এক পক্ষ বলছে তাঁদের নিজেদের বন্দোবস্তিকৃত জায়গা দখল করে সেলিম এন্ড ব্রাদার্স প্রতিষ্ঠানের নামে রাবার বাগান সৃজন করেছিলো। সেখানে বাঁধা দেয়ায় তাঁরা নিজেরা রাবার বাগান কর্তন করে গাছকাটার মিথ্যে মামলায় আসামি করার চেষ্টা করা হয়েছে।

অপরপক্ষ সেলিম এন্ড ব্রাদার্স কর্তৃপক্ষ দাবী করছে তাদের প্রতিষ্ঠানের সৃজিত বাগান কেটে বেদখল দেয়া হচ্ছে।

অন্যদিকে স্থানীয় বাসিন্দা মেরুং ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদা বেগম লাকী জানান, রাবার বাগান সৃজনকৃত জায়গাটি আমার শ্বশুর মৃত মানিক শেখের নামে বন্দোবস্তীকৃত। শ্বশুরের মৃত্যুর পর থেকে আমার স্বামী মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিনের ভোগদখলে আছে।

আমার স্বামী রাঙ্গুনিয়ায় কর্মরত থাকার কারণে সুযোগ নিয়ে সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের লোকজন রাবার বাগান সৃজন করে জায়গাটি জবর দখল শুরু করে। জানতে পেয়ে সেখানে গিয়ে আমরা বাঁধা দেয়ার চেষ্টা করলে সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের লোকজন ষড়যন্ত্র করে তাঁদের শ্রমিক দিয়ে রাবার বাগান কঅতন করে মিথ্যে মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

অপরদিকে সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের তত্বাবধায়ক খলিলুর রহমান জানায়, মাহমুদা বেগম লাকী সম্প্রতি বাগানে দেশীয় অস্ত্রসহ ৩০ থেকে ৩৫ জন লোক নিয়ে উপস্থিত হয়ে দাবী করেন এ জায়গা তাঁর স্বামী মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিনের। এসময় আমাদের উপর আক্রমণ করে ও নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রায় ৯’শত রাবার গাছ কর্তন করে ফেলেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সৃজনকৃত বাগানটি গাছ শূন্য এবং কিছু কর্তনকৃত গাছের টুকরো পড়ে আছে সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের অফিসের সামনে।

সেখানে সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের কর্মরত শ্রমিক নুরুল ইসলাম ও রিজাব চাকমা সহ বেশ কয়েকজন জানান, মাহমুদা বেগম লাকী লোকজন সহ বাগানে এসে সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের সৃজনকৃত গাছগুলো কেটে ফেলতে বলেন। এসময় সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের তত্ত্বাবধায়ক খলিলুর রহমান আমাদের নির্দেশ করলে আমরা নিজেরাই গাছগুলো কেটে ফেলি৷

এদিকে পার্শ্ববর্তী মোহাম্মদ মাহবুব আলম বলেন, আমার পিতার নামীয় বন্দোবস্তিকৃত ৫’একর জমি সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের লোকজন বিভিন্ন সময় রাতের আধাঁরে দখলের চেষ্টা করে। এমনকি বাগানের অনেকগুলো সেগুনগাছ কর্তন করে ফেলে। যা বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে এবং আদালতে মামলা চলমান।

এবিষয়ে আনীত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে সেলিম এন্ড ব্রাদার্সের ম্যানেজার মতি রঞ্জন ত্রিপুরা জানায়, প্রতিষ্ঠানের নামে ক্রয়কৃত ও দখলকৃত ভূমিতেই বাগান সৃজন করা হয়েছে। তাছাড়া পাশ্ববর্তী মাহবুব আলম যে অভিযোগ করেছে সেটাও ভিত্তিহীন।

এম/এস

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com