• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দেশের মানুষের সুরক্ষায় সার্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করেছে সরকার….নাজমুন আরা সুলতানা লামায় চাম্পাতলী বৌদ্ধ বিহারের চেরাং ঘর আগুনে পুড়ে গেছে রামগড়ে হত্যা মামলা আসামি ২৩ বছর পর গ্রেফতার মহেশখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৫ জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল ৫ দিনের ছুটি শেষে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু বেনাপোল বন্দরে যশোর শার্শার বেলতলা বাজারে গুটি আম বেচাকেনা শুরু রাঙ্গামাটির রাজস্থলীতে দুই ইউপি সদস্য ৯ দিন ধরে নিখোঁজ রামগড় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যেগে,শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ কাপ্তাইয়ের  চিংম্রং এ  সাংগ্রাঁই জল উৎসবে মাতোয়ারা হাজার হাজার তরুণ তরুণী 

রাতের আঁধারে মটর ড্রাইভারকে মারধরের অভিযোগ

আলী আজীম, মোংলা (বাগেরহাট): / ৩০৮ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২৩

আলী আজীম, মোংলা (বাগেরহাট):

মোংলায় রাতের আঁধারে মোঃ আবু হানিফ (৩৮) নামের এক মোটরসাইকেলের ড্রাইভারকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে মিঠাখালী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

মো: আবু হানিফ উপজেলার ঠোটারডাঙ্গা এলাকার মোঃ আব্দুল মজিদ শেখের ছেলে। এ বিষয়ে মিঠাখালি ইউনিয়নের মোঃ হাকিমের ছেলে মোঃ মাসুম (৪০) ও মোঃ মিলন (৩৫) এবং একই ইউনিয়নের মোঃ বাশারের ছেলে মোঃ এমদাদ (২২) কে বিবাদী করে মোংলা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মো: আবু হানিফ।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, মো: আবু হানিফ ও মোঃ নুরুজ্জামান পুরাতন মোটরসাইকেল ক্রয়-বিক্রয় ব্যবসা করে। তারা দুজন ব্যবসায়িক পার্টনার। মো: মাসুমের সাথে মো: হানিফের ব্যবসায়িক পার্টনার মোঃ নুরুজ্জামানের সাথে একটি মোটরসাইকেল ক্রয় নিয়ে বিরোধ রয়েছে। এরই জেরধরে গতকাল রাতে মিঠাখালী বাজারের একটি মুদি দোকান থেকে হানিফ বের হওয়া মাত্রই মো: মাসুম সহ তিনজনে মিলে হানিফ কে বেদম মারধর করে। পরে তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তাদের বিভিন্ন ধরনের ক্ষয়ক্ষতি সহ সুযোগ পেলে খুন জখমের হুমকি দিয়ে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী হানিফ অভিযোগ করে বলেন, এর একদিন আগের রাতে নুরুজ্জামানের বাসায় গিয়ে মারাধর করে মো: মাসুম। আমি আমার বাড়িতে যেতে এখন ভয় পাচ্ছি। আমারতো রাত বেরাত বাড়ি যেতে হয়। কখন কি করে বসে মাসুম।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মো: মাসুম বলেন, আপনারা আমাকে চেনেন না, আপনারা এ ঝামেলার মধ্যে জাইয়েন না।

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুদ্দিন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ