• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
রামগড় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যেগে,শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ কাপ্তাইয়ের  চিংম্রং এ  সাংগ্রাঁই জল উৎসবে মাতোয়ারা হাজার হাজার তরুণ তরুণী  লংগদুতে ৩৭ বিজিবি জোনের উদ্যোগে বিধবা ও অসহায় মহিলাকে বসত ঘর উপহার মানিকছড়িতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৯জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল খাগড়াছড়িতে বর্ণিল আয়োজনে মঙ্গল শোভাযাত্রা মাটিরাঙ্গায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপন ৫ দিনের ছুটি শেষে অফিস-আদালত খুলছে সোমবার  লামায় পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে আহত করল সাজা প্রাপ্ত আসামী বান্দরবানে আসামি ধরতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে পুলিশ কর্মকর্তা আহত

রাঙামাটিতে ওমর ফারুক এর স্মরণে পিসিএনপি’র শোক সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত

স্টাফ রির্পোটারঃ / ২০৪ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : রবিবার, ১৯ জুন, ২০২২

রাঙামাটি জেলা কার্যালয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ (পিসিএনপি) এর আয়োজনে শহীদ ওমর ফারুক ত্রিপুরার স্মরণে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শোক সভা ও দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ রাঙামাটি জেলা সভাপতি শাব্বির আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোলায়মান, প্রচার সম্পাদক মোঃ কবির হোসেন, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মোরশেদা আক্তার, পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সিঃ সহ-সভাপতি মোঃ হাবিব আজম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মামুনুর রশীদ, প্রচার সম্পাদক মোঃ তাজুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় নেতা মাঈনুদ্দীন, ছাত্রনেতা মোঃ শহিদুল, মোঃ রাজু, মোঃ সাব্বির, মোঃ রাজ্জাক প্রমুখ।

বক্তাগণ বলেন, ১৮ই জুন২০২১ আজকের এই দিনে গতবছর বান্দরবান জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলাধীন তুলাছড়ি পাড়ার মসজিদের ঈমাম নওমুসলিম শহীদ ওমর ফারুক ত্রিপুরাকে সন্তু লারমার মদদপুষ্ট পাহাড়ী বিচ্ছিন্নতাবাদী সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী কর্তৃক গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। দেখতে দেখতে একটি বছর পার হয়ে গেলো, কোন আসামী এখনো গ্রেফতার হয়নি। মামলার কোন অগ্রগতি নেই। এমনকি হত্যাকান্ডের শিকার ওমর ফারুক ত্রিপুরার পরিবার পায়নি সরকারি কোনো ধরনের সহায়তাও। পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্ত্রাসী সংগঠন গুলো বাঙালী, সাধারণ পাহাড়ী সহ নও মুসলিম দের হত্যা করছে, খুন, গুম অব্যাহত রেখেছে। রোয়াংছড়ির তুলাছড়িতে নও মুসলিম হওয়া ত্রিশ টি পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় আছে। অবিলম্বে নও মুসলিম পরিবার গুলোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে।

পাহাড়ের মানুষ এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীদের থেকে মুক্তি চায়। পাহাড়ে শান্তি আনতে হলে অবিলম্বে সশস্ত্র সংগঠন গুলোর কার্যক্রম সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করতে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। পাহাড়ে আঞ্চলিক সশস্ত্র সংগঠন গুলো না থাকলে অত্র অঞ্চলে শান্তির সুবাতাস বইবে। অবিলম্বে ওমর ফারুক ত্রিপুরা সহ পার্বত্য চট্টগ্রামে আঞ্চলিক সশস্ত্র সংগঠন জেএসএস ও ইউপিডিএফ কর্তৃক হত্যাকান্ডের শিকার হওয়া সকল খুনীদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। সভা শেষে ওমর ফারুক ত্রিপুরার রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ