• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
রামগড় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যেগে,শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ কাপ্তাইয়ের  চিংম্রং এ  সাংগ্রাঁই জল উৎসবে মাতোয়ারা হাজার হাজার তরুণ তরুণী  লংগদুতে ৩৭ বিজিবি জোনের উদ্যোগে বিধবা ও অসহায় মহিলাকে বসত ঘর উপহার মানিকছড়িতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৯জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল খাগড়াছড়িতে বর্ণিল আয়োজনে মঙ্গল শোভাযাত্রা মাটিরাঙ্গায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপন ৫ দিনের ছুটি শেষে অফিস-আদালত খুলছে সোমবার  লামায় পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে আহত করল সাজা প্রাপ্ত আসামী বান্দরবানে আসামি ধরতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে পুলিশ কর্মকর্তা আহত

বেলকুচিতে যুবদল নেতা দিনে হামলার শিকার, রাতে গ্রেফতার!

আশিকুল ইসলাম, বেলকুচি প্রতিনিধি : / ১৪৬ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২৩

আশিকুল ইসলাম বেলকুচি প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক গোলাম কিবরিয়াকে বৃহস্পতিবার দুপুরে মুকন্দগাঁতী দোকান থেকে বাড়ী ফেরার পথে চন্দনগাঁতী বসুন্ধরায় পৌছিলে ভ্যান থেকে নামিয়ে বাটাম ও হাতুড়ি দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীদের বিরুদ্ধে। আবার ঐদিন ২৬শে অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাতেই হামলার শিকার গুরুতর আহত যুবদল নেতা গোলাম কিবরিয়াকে গ্রেফতার করে বেলকুচি থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত যুবদলনেতা গোলাম কিবরিয়া বেলকুচি উপজেলা ৩ নং ভাঙ্গাবাড়ী ইউনিয়ন চন্দনগাঁতী গ্রামের মো: আসমত আলীর ছেলে।

বিএনপি নেতা কর্মীরা জানান, বিনা কারনে আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা আমাদের অন্যায় ভাবে অত্যাচার জুলুম নির্যাতন করে তারাই আবার মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেয়। তাদের মিথ্যা মামলার কারনে আমাদের প্রায়ই থাকতে হয় কোর্ট – আদালতে আর রাতে থাকতে হয় বন জঙ্গলে। আমরা পরিবার ও ছেলে সন্তান নিয়ে বাড়িতে ঘুমাতে পারিনা। বাড়িতে থাকলেই গ্রেফতার হতে হয়। এরই বাস্তব চিত্র বেলকুচি উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক গোলাম কিবরিয়া তাদের ধারা হামলার শিকার হওয়ার কারনে হাসপাতালে গিয়ে ভাল ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসাও হতে পারেনি, কারন হামলার সময় তাকে জানে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে যায়। আর এজন্যই গ্রামের ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসা নেয় গোলাম কিবরিয়া। আর এমতাবস্থায় অসুস্থ জখমকৃত শরীর নিয়ে পালাতে পারেনি কিবরিয়া তাই রাতেই হতে হয় গ্রেফতার।

গোলাম কিবরিয়ার ছোট ভাই কামাল হোসেন জানান, আমার ভাই কিবরিয়া দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কর্মীর ধারা হামলার শিকার হয়। খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে গ্রামীণ ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসা করি। চিকিৎসা দিতেই রাত হয়ে যায়। আলোচনা সাপেক্ষে পরেরদিন থানায় অভিযোগ করার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়। কিন্তু আমার অসুস্থ জখমকৃত ভাই কে রাত দুইটার সময় গ্রেফতার করে নিয়ে গেছে পুলিশ।

এবিষয়ে বেলকুচি থানা অফিসার ইনচার্জ আনিসুর রহমান এর নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, গোলাম কিবরিয়া তদন্ত প্রাপ্ত বিস্ফোরক মামলার আসামি। এই মামলায় তাকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতার করে আজ শুক্রবার সকালে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে মারপিটের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, সে হামলার শিকার হয়েছে বা তাকে মারপিট করেছে এবিষয়ে কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি, তবে পরে লোকমুখে জানতে পেরেছি সে হামলার শিকার হয়েছে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ