• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বেলকুচি থানায় পুলিশ সুপার কাপ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম ইপিজেড থানা দ্বি-বার্ষিক পরিদর্শনে (অতিরিক্ত আইজিপি) কৃষ্ণপদ রায় মহেশখালীতে বিসিএস সুপারিশপ্রাপ্ত ৭ ক্যাডার’কে শুভেচ্ছা জানালেন ইউএনও সোনাগাজীতে ইউনাইটেড প্রিমিয়ার লীগের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ ঢাবিতে ভর্তিচ্ছুকদের জন্য পিসিসিপি ‘হেল্প ডেস্ক’ মানিকছড়িতে উপ-নির্বাচন প্রতীক পেয়ে প্রচারণায় প্রার্থীরা বান্দরবানে ২৫ এবং ৫২ কিলোমিটার ম্যারাথন দৌড়ে আলমগীর হোসেন ও আব্দুর রহমান প্রথম লংগদুতে সেনা জোনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ মানিকছড়িতে ইজারা বর্হিভুত বালু মহালে অভিযান ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা মহালছড়িতে শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত

রাজারহাটে বৃষ্টির অভাবে আমন চারা রোপণে দিশেহারা কৃষক

আনিসুর রহমান, রাজারহাট প্রতিনিধি: / ২২২ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : রবিবার, ৮ আগস্ট, ২০২১

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে প্রচণ্ড তাপদাহ ও বৃষ্টির অভাবে আমন চারা রোপণে দিশেহারা হয়ে পড়েছে কৃষক। আষাঢ় পেড়িয়ে গেছে অনেক আগে চলে যাচ্ছে শ্রবণও কখনও একপশলা বৃষ্টি হলেও জমিতে নেই পানি।
ঋতু চক্রে নিয়মে বর্ষাকাল হলেও দেখা নেই রাজারহাট উপজেলায় বর্ষার।
কৃষি প্রধান উপজেলায় পানির অভাবে আমন চাষে দিশেহারা হয়ে পরেছে কৃষক।

আমন চারা রোপনের ভরা মৌসুম হলেও প্রত্যাশিত বৃষ্টির পানির অভাবে চারা রোপন করতে পাড়ছে না উপজেলার কৃষকরা। উপজেলাজুড়ে ঘুরে দেখা যায় কৃষকেরা বৈদ্যুতিক সেচপাম্প কিংবা শ্যালো মেশিনের সাহায্যে সেচ দিয়ে আমন চারা রোপন করতেছে কৃষকরা। কয়েক দিন আগে যে সমস্ত আমন চারা রোপন করা হয়েছে তা পানির অভাবে শুকিয়ে যাচ্ছে জমি,মাটি ফেঁটে চৌচির হয়েছে ফসলের মাঠ। কথা হয় উপজেলার হাড়িডাঙ্গা গ্রামের নুরনবী, রাজা মিয়া,ঘড়িয়াল ডাঙ্গার এমদাদুল হকের সাথে,তারা বলেন এত দিন বৃষ্টির পানির অপেক্ষায় ছিলাম বৃষ্টির দেখা নাই বাধ্য হয়ে শ্যালো মেশিনের পানি দিয়ে চাষাবাদ শুরু করলাম।

রাজারহাট উপজেলা কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষনাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র জানান কয়েক দিনে গড় তাপমাত্র ৩৪.৫ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে আগামী সপ্তাহে মাঝারী থেকে ভারি বৃষ্টি পাত হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সম্পা আকতার জানান এবারে উপজেলায় ১১ হাজার ৫২০ হেক্টর জমিতে আমন ধান আবাদের লক্ষ মাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে।বন্যা সহিঞ্চু জাত বি,আর- ৫২, ৭৯ এবং আয়ুস্কাল কম বি,আর -২৩ ও ৩৪ জাতে ধান লাগালে কৃষকরা লাভবান হবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ