• শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মাটিরাঙায় জাতীয় বীমা দিবস উদযাপন জাতীয় বীমা দিবসে মানিকছড়িতে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা ১নং কবাখালী সপ্রাবিতে পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এনায়েতপুরে মেয়েকে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় সাংবাদিককে মারধর, কিশোর গ্যাংয়ের লিডার সহ ৪ জন আটক বাঘাইহাট দারুল আরকাম ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে পোশাক ও বার্ষিক ক্রীড়া পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত গুইমারাতে সেনাবাহিনীর মানবিক সহায়তা প্রদান কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ আলীকদমে একুশে বই মেলায় বীর বাহাদুর এমপি রাঙামাটি শহরে ছিনতাইএ জড়িত তিন চাকমা যুবক আটক ভারতের রাজস্থানের আইসিইউতে ধর্ষণে শিকার তরুণী

বান্দরবানে সেনা ও জেলা পরিষদের উদ্যোগে ১০৮ পরিবারকে সহায়তা প্রদান

আসিফ ইকবাল, বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি: / ১০৮ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : রবিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২৩

আসিফ ইকবাল, বান্দরবন জেলা প্রতিনিধি 

বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার পাইক্ষ্যং ও ক্যাপলং পাড়ায় বান্দরবান সেনা রিজিয়ন ও জেলা পরিষদের উদ্যোগে ১০৮ পরিবারের মাঝে মানবিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

আজ রোববার (২৬ নভেম্বর) রোয়াংছড়ি উপজেলার পাইক্ষ্যং পাড়ায় ৮০ ও ক্যাপলং পাড়ায় ২৮ জনসহ নিজেদের বসতভিটায় পুর্ণবাসিত মোট ১০৮ পরিবারের মাঝে মানবিক সহায়তা প্রদান করা হয়। এসময় এসব পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী, ঔষধ, শীত বস্ত্র এবং ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
নিরাপত্তার ব্যাপারে আস্থা ও বিশ্বাস বৃদ্ধি পাওয়ায় সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় নিজেদের আবাসস্থলে ফিরতে শুরু করে বম সম্প্রদায়ের জনসাধারণ। মানবিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের রিজিয়ন কমান্ডার, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম মহিউদ্দিন আহমেদ এসজিপি, এনডিসি, এএফ ডব্লিউসি, পিএসসি, পিএইচডি বলেন, আমরা চাই একটি সৌহার্দপূর্ণ বান্দরবান, যেখানে নানা ধর্ম বর্ন সকল সম্প্রদায়ের মাঝে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ এবং শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান সহঅবস্থা বজায় থাকবে। যারা পূর্বে পাড়া থেকে চলে গিয়েছিলো তারা নির্ভয়ে আবার পাড়ায় ফিরে আসতে পারবে। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সেনাবাহিনী সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা বলেন, দীর্ঘ সংহিতা’য় এই এলাকায় বসবাসকারী জনসাধারণের অনেক ক্ষতি হয়েছে। ধাপে ধাপে কিভাবে শান্তি আলোচনার অগ্রগতির মাধ্যমে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা যায় সেইদিকে আমরা এগুচ্ছি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জোন কমান্ডার লেঃ কর্নেল মাহমুদুল হাসান পিএসসি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, খোরশেদ আলম, বম সোশ্যাল কাউন্সিল এর সভাপতি লাল জারলম বম, রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, মোঃ আবুল কালামসহ পাড়া কারবারি, সুবিধাভোগী জনসাধারণ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ।

পাশাপাশি ভলান্টিয়ার হিসেবে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন বান্দরবানের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিডি ক্লিন, বান্দরবান বম স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন, খেয়াং স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন, ডিএসবি, টিম ডেসপারেটলি সিকিং বান্দরবান।

উল্লেখ্য যে, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা কে আহ্বায়ক করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট শান্তি প্রতিষ্ঠিতা কমিটির সাথে গত ৫ই নভেম্বর বান্দরবানের রুমায় শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির সঙ্গে নতুন সশস্ত্র সংগঠন কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) সঙ্গে প্রথম মুখোমুখি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ