• সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ১০:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
খাগড়াছড়িতে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল বেলকুচি উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজকে গড়ে তুলে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভুমিকা রাথতে হবে -বাবুল দাস কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত কাপ্তাই বিএসপিআই শিক্ষার্থীদের ওপর ফের হামলা, ৪ জন আহত এম কে বাঘাবাড়ী ঘি কোম্পানির উৎপাদনকারী মো: কামাল উদ্দিনের ১ বছরের কারাদণ্ড কোটা সংস্কারের দাবিতে  কাপ্তাই বিএসপিআই এ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

মোংলায় প্রতারণায় দুই কোটি টাকার সম্পত্তি হারিয়েছে এক নারী

আলী আজীম, মোংলা (বাগেরহাট): / ১৭৬ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০২৪

 

মোংলা থানার দিগরাজ এলাকায় অভিনব প্রতারনায় শিকার হয়ে এক নারী হারিয়েছেন প্রায় দুই কোটি টাকার সম্পত্তি ।

সরেজমিনে তদন্ত করে জানা যায় উপজেলার সিগনাল টাওয়ার এলাকার বাসিন্ধা রেনু আরা বেগম (৬৫) এর মালিকানাধীন ১.২০ একর সম্পত্তি স্থানীয় একটি দালাল চক্র সু-কৌশলে হাতিয়ে নিয়েছে ।

মোংলা থানার দিগরাজ বুড়িডাঙ্গা ইউনিয়নে ভুক্তভুগির নামে ১.২০ একর (প্রায় সোয়া দুই বিঘা) জমাজমি রয়েছে । স্থানীয় জমির দালাল ফরাজি আলম ও গাউছ ফকির এর নেতৃত্বাধীন দালাল চক্র গ্যাংটি ঐ জমি বিক্রয় করে দেওয়ার কথা বলে পাওয়ার রেজিঃ করিয়া নেয় । যার নং- মোংলা রেজিঃ পাওয়ার দলিল নং ৩১২০(১১/১২/২০২৩ ইং) এবং মোংলা রেজিঃ ৩২৫৭ (২৮/১২/২০২৩ ইং)

প্রতারক চক্রটি পাওয়ার রেজিষ্টির নামে সু-কৌশলে ঐ সম্পত্তি নিজেদের নামে মালিকানা করে নেয়। ঘটনার প্রায় ২ মাস পর ভুক্তভোগি বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনার সতত্য খুজে পায়। খোজ খবর নিয়ে আরো জানতে পারে, জমির দালাল ফরাজি আলম ওরফে হাজি আলম ও গাউছ ফকির গ্যাংটি মূলত একটি প্রতারক চক্র। ইতি পূর্বে বহু লোকের জমাজমি বিক্রয় করে দেওয়ার কথা বলে এভাবে আত্বসাৎ করেছে ।

তাৎক্ষণিক ভুক্তভোগী ঐ নারী বাগেরহাট জেলা আদালতে গিয়ে পাওয়ারটি বাতিলের জন্য আবেদন করেন। যার নং- দেঃ ৯/২৪ যুগ্ম জেলা জজ আদালত, বাগেরহাট ।

এদিকে পাওয়ার বাতিলের মামলার কথা জানতে পেরে ফরাজি গ্যাং এর লোকজন অনেকটা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। ভুক্তভোগীকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভিতি ও হুমকি দিতে থাকে। ভুক্তভোগী ঐ নারী প্রান ভয়ে এখন নিজ বসতবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে বেরাচ্ছেন। এ ব্যাপারে সরকারের উচ্চমহলের সাহায্য চেয়েছেন ভুক্তভোগী ঐ নারী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ