• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কাপ্তাইয়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয়  ফুটবল টুর্ণামেন্ট শুরু  কাপ্তাই বন বিভাগের পক্ষ হতে শিক্ষার্থীদের গাছের চারা বিতরণ  কাপ্তাই রাহাত স্টোরে ৩৫ প্রকার চা এবং হরেক রকম পান পাওয়া যায়  খাগড়াছড়ি গুইমারা থানা পুলিশের অভিযানে গাজাসহ আটক-২ রাজস্থলীতে উৎসব মুখর পরিবেশে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন কাপ্তাইয়ের  শিলছড়িতে সামাজিক শৃঙ্খলা কমিটি গঠন  বীর মুক্তিযোদ্ধার পরলোকগমন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সতকার

বাকী আছে ১দিন-গরু বাজারে ভীড় ক্রেতা ও বিক্রেতার

মোঃ জুবাইরুল ইসলাম, চকরিয়া(কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ / ২৭২ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪

মোঃ জুবাইরুল ইসলাম, চকরিয়া(কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ কক্সবাজার বাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার উত্তর হারবাং এলাকার নতুনভাবে গড়ে উঠা গরু বাজার।

১৫’ই জুন,২৪ইং(শনিবার) সরেজমিনে উত্তর হারবাং (৯নং ওয়ার্ড) নতুনভাবে গড়ে উঠা বাজারে গেলে উৎসবমুখর ও জমজমাট পরিবেশ লক্ষ করা যায়।

মুসলিম উম্মাদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহা। তারমধ্যে ঈদুল আজহা হচ্ছে আল্লাহর একত্ববাদে বিশ্বাস রেখে নিজের সবচেয়ে সুন্দর ও পছন্দের জিনিসটি ত্যাগ দিয়ে পালন করতে হয় এই ঈদ।সারা বিশ্বের মুসলিম যাদের সামর্থ্য থাকে তারা তাদের পছন্দের পশু দুম্বা, গরু,ছাগল বা ভেড়া এসব নিয়ে আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য কোরবান দিয়ে থাকে।তাদের একমাত্র উদ্দেশ্য থাকে আল্লাহর সন্তুষ্টি।

এদিকে হারবাং ইউনিয়নে বৃহৎ গরু বাজার থাকলেও গত দু’তিন বছর ধরে নতুনকরে এলাকার কিছু সচেতন মানুষের প্রচেষ্টায় চালু হয়েছে উত্তর হারবাং ভিলেজের পাড়া রাস্তার মাথায় নতুন গরু বাজার।এ বাজারে গত দুই বছর ইজারা না ডাকলেও এবছর থেকে নতুন করে ইজারা দেওয়া হয়েছে।ইজারা ডাকার পূর্বে গরুর হাসিল ১০০ টাকা ও ছাগল ৫০ টাকা থাকলেও ইজারা ডাকার কারণে এবছর গরুর হাসিল ৩০০ এবং ছাগলের হাসিল ৫০ করে নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

কয়েকজন ক্রেতা ও বিক্রেতার সাথে কথা বলে জানা যায় আশেপাশে কোনো ধরনের চাঁদা বা ট্যাক্স দিতে না হওয়ায় আর যাতায়াত সুবিধার কারণে এ বাজারে গরু /ছাগল ক্রয় বিক্রয় করে আমরা খুশি।গরু যত বড় হউক বা দাম যতই হউক হাসিল মাত্র ৩০০, অন্যদিকে ছাগল মাত্র ৫০ এটি আসলে প্রশংসা করার মতো।তাই এ বাজারের সাথে সংশ্লিষ্ট যারা আছে প্রত্যেকের প্রতি কৃতজ্ঞ।

গরু বাজার নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা ও উত্তর হারবাং ভিলেজের পাড়ার বিশিষ্ট সমাজসেবক আব্দুল আলম জানান,আমাদের লক্ষ এলাকার মানুষের উপকার করা।তাই লোকসান হলেও আমরা অল্প হাসিল নিয়ে গরু বাজারটি টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করছি।সকলের সহযোগিতা থাকলে বাজারটি সামনেও চলমান থাকবে।

বাজার শেষের দিকে চলে আসায় নতুন এ বাজারটি কেমন গরু ক্রয় বিক্রয় হয়েছে তা জানতে চাইলে সংশ্লিষ্ট একজন জানান,প্রয় কয়েকশ গরু ছাগল ক্রয়-বিক্রয় হয়েছে।গতকাল ১৪’ই জুন,২৪ইং (শুক্রবার) প্রায় ১০০টির মতো গরু বিক্রয় হয়েছে এবং আজকে সন্ধা হতে হতে হয়তো ৭০-৮০টি গরু বিক্রি হবে বলে আশা করছি।

যেকোনো ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা থেকে নিরাপদ থাকার জন্য হারবাং এর সকল গরু বাজারে পুলিশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ফরিদুল আলম।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ