• শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মাটিরাঙায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন ইউএনও আলীকদম সেনা জোন (৩১ বীর) কর্তৃক ২,৬৬,৬০৫ টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান নিজের কণ্ঠস্বর বিক্রি করে সফলতা অর্জন রামগড়ে বাগান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার রামগড় কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের জঙ্গলে পড়েছিল শ্রমিকের মরদেহ কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধ্বসের  আজ ৭ বছর : এখনোও ঝুঁকিতে বসবাস করছে বহু মানুষ রাজধানীর পল্টনে বহুতল ভবনে আগুন চট্রগ্রামে শপথ নিলেন রাজস্থলী উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা পাংশায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ৬ আসামি গ্রেপ্তার  রামগড় ৪৩ বিজিবির অভিযানে ভারতীয় মদ জব্দ কাপ্তাই নতুনবাজার আনন্দ মেলা গরুর বাজার: পাহাড়ি গরুর চাহিদা বেশী ক্রেতাদের কাপ্তাই সেনা জোনের উদ্যোগে  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান

লামায় বসতভিটা রক্ষায় অসহায় বৃদ্ধের সংবাদ সম্মেলন

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ব্যুরো প্রধান বান্দরবান: / ২০৬ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শনিবার, ৩০ মার্চ, ২০২৪

 

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ব্যুরো প্রধান, বান্দরবান

লামা উপজেলায় বহিরাগত জবরদখলকারীর হাত থেকে নিজ বসতভিটা সহ ভোগ দখলীয় জমি রক্ষায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন, আবদুল গফুর নামের এক অসহায় ভুক্তভোগী পরিবার। হাজি দেলোয়ার হোসেন ও চুইসিং মার্মা নামের দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় লামা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

এতে অন্য ভুক্তভোগীর মধ্যে আব্দুল আজিজ ও আবদুল অদুদ সহ গ্রামবাসীগণ উপস্থিত ছিলেন। ভুক্তভোগী উপজেলার সরই ইউনিয়নের কম্পোনিয়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত সুলতান আহমদের ছেলে।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী আব্দুল গফুর জানায়, ছেলে মেয়ে স্ত্রী ও আব্দুল গফুরের নামে ক্রয়সূত্রে উপজেলার ৩০৩ নং ডলুছড়ি মৌজায় বিভিন্ন হোল্ডিং মূলে দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণীর ১৫ একর জমি আছে। এ জমি ক্রয়ের পর তথায় বিভিন্ন ফলদ বনজ গাছের বাগান ও বসতঘর নির্মাণ করে আব্দুল গফুর ও তার পরিবারের অন্য সদস্যরা দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে ভোগ করে আসছেন। দেলোয়ার হোসেন ও চুইসিং মার্মা নামের দুই ব্যক্তি পরিকল্পিতভাবে ২০১৪ সালে এসে ওই জমি দাবী করে একের পর এক মামলা হামলা শুরু করেন। হাজি দেলোয়ার হোাসেন ২০১৪ সাল থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত আব্দুল গফুরদের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করেন। এক পর্যায়ে গত ৪ ফেব্রুয়ারী চিরস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে বান্দরবান সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে অপর মামলা (নং ১৭) দাখিল করেন আব্দুল গফুর। এ প্রেক্ষিতে হাজী দেলোয়ার হোসেন ১৬ ফেব্রুয়ারী নোটিশ প্রাপ্তির পর ক্ষিপ্ত হয়ে আবদুল গফুর সহ ৫ জনকে আসামী করে লামা থানায় আরও একটি মামলা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বসতবাড়ি সহ জমি জবর দখল চেষ্টা ও হয়রানির হাত থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনের সহায়তা কামনা করেন, আব্দুল গফুর পরিবারের সদস্যরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ