• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৩:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঈদ উপলক্ষে হরিহরনগর ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফের চাল বিতরণ বাগেরহাটে বেআইনীভাবে প্রস্তুত হচ্ছে শামুকের খোলস পুড়িয়ে চুন ২ এপিবিএন, মেঘলা, বান্দরবান কর্তৃক একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার দেশ সেরা এটিও কাপ্তাইয়ের আশীষ কুমার আচার্য্য বাকী আছে ১দিন-গরু বাজারে ভীড় ক্রেতা ও বিক্রেতার শার্শা বেনাপোল বন্দরের ৫ দিন বন্ধ থাকবে আমদানি-রপ্তানি মোংলায় দিন দুপুরে দোকান ঘর ভাংচুর ও জবর দখলের চেষ্টা লংগদুতে বজ্রপাতে নিহত ৪ নিখোঁজ ১ মহালছড়ি সেনা জোনের উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ মাটিরাঙায় সেনাবাহিনীর বিশেষ মানবিক সহায়তা কাপ্তাই শিল্প এলাকা হতে উদ্ধার ১২ টি পান কৌড়ি  শেখ রা‌সেল এভিয়ারী এন্ড ইকো-পার্কে হস্তান্তর  আসছে সামনে ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির গরুর হাট

গাড়ি ভাড়া চাওয়ায় হাতুড়ি মেরে ড্রাইভারকে রক্তাক্ত

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ব্যুরো প্রধান, বান্দরবান: / ৫৬৮ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বুধবার, ২১ জুন, ২০২৩

মালামাল পরিবহন বাবদ বকেয়া গাড়ি ভাড়া চাওয়ায় মোঃ সেলিম উদ্দিন লিটন (৪৫) নামে এক ড্রাইভারকে হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠেছে মোঃ মুসা (৩৯) নামে এক গাছ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে। চকরিয়া উপজেলার বমু বিলছড়ি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড পশ্চিম পাড়া গ্রামে মোঃ মুসার ফার্ণিচার দোকানে গত রবিবার রাত সাড়ে ৯টায় এই ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত মোঃ লিটন ড্রাইভার লামা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড নয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা এবং বর্তমানে বমু বিলছড়ি ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড পূবপাড়ায় বসবাস করেন। মধ্যযুগীয় কায়দার মারধর করা মোঃ মুসা বমু বিলছড়ি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড পশ্চিম পাড়া গ্রামের মোঃ শফি’র ছেলে।

এদিকে আহত গাড়ির ড্রাইভার লিটনকে রক্তাক্ত আবস্থায় ঘটনার পরপরই আশপাশের লোকজন রবিবার রাতে লামা সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। তার অবস্থার অবনতি হতে মঙ্গলবার (২০ জুন) সকালে তাকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। আহতের পরিবার আর্থিক সংকটে তাকে চকরিয়া নিয়ে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরিক্ষা শেষে আবার লামা হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে সে লামা সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

লামা সরকারি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক বলেন, লিটনের মাথার পিছনে তিন সেলাই, কপালের বাম পাশে শক্ত কিছু দিয়ে আঘাত করায় থেতলে গেছে এবং বাম বুকে চারটি সেলাই দিতে হয়েছে। প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। এছাড়া শরীরের আরো বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

আহত ড্রাইভার মোঃ লিটন এর শারীরিক অবস্থার কিছুটা স্থিতিশীল হলে বুধবার (২১ জুন) দুপুরে হাসপাতালে কথা হয়। তিনি প্রতিবেদককে জানায়, বিভিন্ন সময়ে সে অভিযুক্ত গাছ ব্যবসায়ী মোঃ মুসার ভাড়া মারে। গাড়ি ভাড়া বাবদ সে মুসার কাছ থেকে ১১ হাজার টাকা পায়। এই টাকা অনেকদিন না দিয়ে ঘোরাঘুরি করে এবং ফোন দিলেও সে রিসিভ করেনা। পরে রবিবার (১৮ জুন) রাত সাড়ে ৯টায় বাড়ি যাওয়ার পথে তাকে পশ্চিমপাড়া তার (মুসার) ফার্ণিচার দোকানে দেখে ভাড়ার টাকা চায়। সে টাকা এক সপ্তাহ পরে দিবে বলে। ড্রাইভার লিটন ‘টাকা এখন দিতে হবে’ এমন বলায় মোঃ মুসা তার দোকান থেকে হাতুড়ি নিয়ে বেধড়ক মারধর করে। রক্তাক্ত অবস্থায় অজ্ঞান হয়ে দোকানের সামনে রাস্তায় পড়ে থাকলে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে লামা হাসপাতালে নিয়ে আসে এবং তার পরিবারের লোকজনকে খবর দেয়। তিনি আরো বলেন, এসময় আমার মানিব্যাগ হারানো যায়। যাতে নগদ ১২ হাজার টাকা এবং আমার জরুরি কাগজপত্র ছিল।

মোঃ লিটন এর স্ত্রী মোশরেফা আক্তার সুমি বলেন, আমার স্বামীকে ভাড়ার টাকা চাওয়ায় যেভাবে মারধর করেছে। এই ঘটনায় আমরা চকরিয়া থানায় মামলা করতে যাচ্ছি।

এই বিষয়ে জানতে মোঃ মুসার মোবাইলে (০১৭৭০৫৫৪৯৯৯) অসংখ্যবার কল দিলেও তার মোবাইলে সংযোগ না পাওয়ায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

পার্বত্যকন্ঠ নিউজ/এমএস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ