• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০২:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঈদ উপলক্ষে হরিহরনগর ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফের চাল বিতরণ বাগেরহাটে বেআইনীভাবে প্রস্তুত হচ্ছে শামুকের খোলস পুড়িয়ে চুন ২ এপিবিএন, মেঘলা, বান্দরবান কর্তৃক একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার দেশ সেরা এটিও কাপ্তাইয়ের আশীষ কুমার আচার্য্য বাকী আছে ১দিন-গরু বাজারে ভীড় ক্রেতা ও বিক্রেতার শার্শা বেনাপোল বন্দরের ৫ দিন বন্ধ থাকবে আমদানি-রপ্তানি মোংলায় দিন দুপুরে দোকান ঘর ভাংচুর ও জবর দখলের চেষ্টা লংগদুতে বজ্রপাতে নিহত ৪ নিখোঁজ ১ মহালছড়ি সেনা জোনের উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ মাটিরাঙায় সেনাবাহিনীর বিশেষ মানবিক সহায়তা কাপ্তাই শিল্প এলাকা হতে উদ্ধার ১২ টি পান কৌড়ি  শেখ রা‌সেল এভিয়ারী এন্ড ইকো-পার্কে হস্তান্তর  আসছে সামনে ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির গরুর হাট

ওমর ফারুক ত্রিপুরার হত্যাকারী সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনার দাবী পিসিসিপি’র

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙ্গামাটি: / ৩৪১ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : রবিবার, ১৮ জুন, ২০২৩

বান্দরবানের ইসলাম ধর্ম প্রচারক ওমর ফারুক ত্রিপুরা হত্যাকাণ্ডের আজ দুইবছর, হত্যাকারী উপজাতি সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনার দাবিতে ১৮ জুন সকালে গণমাধ্যমে বিবৃতি দিয়েছে পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদ (পিসিসিপি) রাঙামাটি জেলা শাখা।

বিবৃতিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদ রাঙামাটি জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বলেন,
পশ্চিমাদের পৃষ্ঠপোশকতা পরিচালিত খ্রিস্টান মিশনারীদের ইন্দনে গত ১৮ জুন ২০২১ বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার তুলাবন ছড়া গ্রামের নওমুসলিম ওমর ফারুক ত্রিপুরাকে নির্মমভাবে হত্যা করে উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা।

ঘটনার দুই বছর অতিবাহিত হলেও হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত কাউকে এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করতে পারেনি প্রশাসন এবং এমনকি হত্যাকাণ্ডের শিকার ওমর ফারুক ত্রিপুরার পরিবার পায়নি সরকারি কোনো ধরনের সহায়তাও।

দেশের সংবিধান মোতাবেক স্বাধীনভাবে পার্বত্য চট্টগ্রামে বিভিন্ন ধর্মের ধর্মপ্রচারকগণ তাদের ধর্মের প্রচার ও প্রসার দীর্ঘ সময় ধরে চালিয়ে যাচ্ছেন, যার ফলে পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের অনেক বড় একটি অংশ ইতোমধ্যে তাদের পূর্ব পুরুষদের আচরিত বৌদ্ধ, হিন্দু ধর্ম বা প্রকৃতি পূজা ত্যাগ করে খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়েছেন। তাতে কেউ বাঁধা প্রদান করেনি।অপরদিকে আমরা এটা দেখে অবাক হচ্ছি যে, পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তির ধর্ম ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে কেউ মুসলিম হতে চাইলে তাকে বাঁধা দেওয়া হচ্ছে। ইসলামের প্রচার ও প্রসার করতে গেলে ধর্মপ্রচারকদের বিরুদ্ধে সুপরিকল্পিতভাবে একটি গোষ্ঠী প্রতিবন্ধকতা তৈরি করছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে গুম-খুনের হুমকি পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছে। ওমর ফারুক ত্রিপুরাকে যে এই প্রতিক্রিয়াশলীরাই হত্যা করেছে তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদ (পিসিসিপি) রাঙামাটি জেলা শাখা দেশের সংবিধান মোতাবেক সুস্পষ্টভাবে দাবি জানাচ্ছে, পাহাড়ে বসবাররত সকল জাতিগোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের নাগরিক যাতে নিরাপদে তাদের স্ব স্ব ধর্মের বিধিবিধান পালন, প্রচার, প্রচারণা করতে পারে, তেমন একটি সুশৃংখল, নিরাপদ ও সুন্দর পরিবেশ পার্বত্য চট্টগ্রামে নিশ্চিত করা এবং সেইসাথে উপজাতীয় সন্ত্রাসী কর্তৃক নওমুসলিম ওমর ফারুক ত্রিপুরা হত্যাকাণ্ডের ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে দায়ীদের চিহ্নিত করে অপরাধীদের যথাযথ শাস্তি দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি।

পার্বত্যকন্ঠ নিউজ/এমএস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ