• রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
শান্তি চুক্তির ৬৫টি ধারা সম্পূর্ণভাবে বাস্তবায়িত হয়েছে- জাতিসংঘে বাংলাদেশ শান্তিচুক্তির অগ্রগতি জাতিসংঘে তুলে ধরল বাংলাদেশ পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত- লোকমান সভাপতি, মাসুম রানা সম্পাদক কেএনএফ’র সন্ত্রাসী তৎপরতার প্রতিবাদ জানিয়েছে ১১টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী রুমায় তুমুল গোলাগুলি আতঙ্ক, হতাহতের শঙ্কা বর্ণাঢ্য আয়োজনে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত মহালছড়িতে বৈসাবি ফুটবল টুর্নামেন্টে অংম্রাং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন বান্দরবানে জলবায়ু ধর্মঘট করেছে ইয়ুথনেট বান্দরবানে যৌথ অভিযানে গণগ্রেফতার ও হয়রানির প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে পিসিপির বিক্ষোভ মিছিল মানিকছড়িতে সাংগ্রাই উপলক্ষে ঐতিহ্যবাহী বলি খেলা অনুষ্ঠিত

রোয়াংছড়িতে ৩ জনকে গুলি করে হত্যা

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ব্যুরো প্রধান, বান্দরবান: / ১৬২ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : সোমবার, ৮ মে, ২০২৩

বান্দরবানের রোয়াংছড়ির উপজেলার দুর্গম পাইক্ষ্যং পাড়া এলাকায় সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলিতে তিনজন নিহত হয়েছে। গুলিতে আহত হয়েছে একজন। আজ সোমবার দুপুরে পাইখ্যং পাড়ার কাছে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতদের লাশ পুলিশ ও সেনাবাহিনী উদ্ধার করে রোয়াংছড়ি থানায় নিয়ে এসেছে। নিহতদের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলো পাথাং বম, নেমথাং বম ও লম লিয়ান বম। এদের সবার বাড়ি রানিন পাড়ায়। এরা তিনজনই ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক বলে জানা গেছে। আহত ব্যক্তির নাম মানসার বম।

বান্দরবানের পুলিশ সুপার মোঃ তারিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, সকালে পাইখ্যং পাড়া এলাকায় গোলাগুলি হয়েছে এমন খবর পেয়ে সেখানে সেনাবাহিনী ও পুলিশ গেলে সেখান থেকে তিনজনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে। তবে নিহতদের পরিচয় এখনো পুলিশ পায়নি বলে জানিয়েছেন তিনি। গত ৭ মে একই এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে ৮ জন নিহত হয়েছিল। এ ঘটনার এক মাসের মাথায় আবারও তিনজনকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় এলাকায় জনমনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছেন সকালে রনিন পাড়া, পাইখ্যং পাড়া সহ আশেপাশের এলাকার লোকজন রোয়াংছড়ি বাজারে আসার পথে তাদের একদল সশস্ত্র অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গুলিবর্ষণ করে। এ সময় মানসার বম নামের ভাড়ায় চালিত এক মোটরসাইকেল চালক আহত হয়। পরে তিনজনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। বিকেলে সেনাবাহিনী ও পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে এসেছে। এদিকে এ ঘটনার পর ওই এলাকার তিনটি পাড়ার দেড় শতাধিক লোকজন আতঙ্কে পালিয়ে নিরাপদ জায়গায় চলে গেছে। সেখানে সেনাবাহিনী টহল জোরদার করেছে।

কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখনো জানা না গেলেও স্থানীয়রা বলছেন ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক দলের সশস্ত্র সদস্যরা সকাল থেকে পাইখ্যং পাড়া এলাকায় অবস্থান করে গুলি চালিয়েছে। কুকিচিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট কে এন এফ তাদের ফেসবুক পেইজে এ ঘটনার জন্য ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক কে দায়ী করেছে।

পার্বত্যকন্ঠ নিউজ/এমএস 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ