• শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
মহালছড়িতে বৈসাবি ফুটবল টুর্নামেন্টে অংম্রাং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন বান্দরবানে জলবায়ু ধর্মঘট করেছে ইয়ুথনেট বান্দরবানে যৌথ অভিযানে গণগ্রেফতার ও হয়রানির প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে পিসিপির বিক্ষোভ মিছিল মানিকছড়িতে সাংগ্রাই উপলক্ষে ঐতিহ্যবাহী বলি খেলা অনুষ্ঠিত সামাজিক অনুষ্ঠানে প্রার্থীদের সবর উপস্থিতি অসাম্প্রদায়িক ও স্মার্ট জনপদ গড়ার অঙ্গীকার তীব্র দাবদাহ বিদ্যুৎ বিভ্রাট পোল্ট্রি খামারে হাঁসফাঁস অবস্থা! খাগড়াছড়ি পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের সম্মেলন ২০ এপ্রিল ব্যাংকে হামলা: ১৮ নারীসহ ৫৩ কেএনএফ সন্ত্রাসীর রিমান্ড মঞ্জুর মানিকছড়িতে মোবাইল কোর্টে জরিমানা নতুন বাজার আনন্দ মেলা খেলার মাঠে গোলবার প্রদান করলেন কাপ্তাই সেনা জোন

মাগুরায স্বাস্থখাতের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে মাগুরায় গণ কমিটির মানববন্ধন

মাগুরা প্রতিনিধিঃ / ৩১১ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২২

আজ ১৮ অক্টোবর মঙ্গলবার মাগুরা চৌরঙ্গীর মোড়ের প্রেসক্লাবের সামনে মাগুরা জেলা গণ কমিটি আয়োজিত মাগুরার স্বাস্থখাতের দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা ও ডাক্তারদের অতিরিক্ত ফী আদায়ের বিরুদ্ধে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত মানবন্ধন অনুষ্ঠানে বক্তারা মাগুরা জেলার চিহ্নিত অপচিকিৎসকদের বিরুদ্ধে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করার জন্য জেলা সিভিল সার্জনের সমালোচনা করেন, পাশাপাশি অপচিকিৎসায় মৃত রোগীদের ব্যাপারে যথাযথ তদন্ত না হওয়ায় একের পর এক রোগী মারা যাচ্ছে, এব্যাপারে প্রশাসনকে কার্যকর ভূমিকা রাখার জন্য বক্তারা আহবান জানান।

সমাবেশের সভাপতিত্ব করেন গণকমিটির আহ্বায়ক এটিএম মহব্বত আলী। সমাবেশ পরিচালনা করেন গণকমিটির সদস্য সচিব প্রকৌশলী শম্পা বসু। বক্তব্য রাখেন, গণকমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী নজরুল ইসলাম ফিরোজ, এটিএম আনিসুর রহমান, বাংলাদেশ জাসদ এর সাধারণ সম্পাদক কাজী জিন্নাতুর নূর, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি মাগুরা জেলা কমিটির সদস্য নিখিল মিত্র, সদস্য বাসারুল হায়দার বাচ্চু, আব্দুল গফুর মোল্যা।

গণকমিটির আহ্বায়ক এটিএম মহব্বত আলী বলেন, মাগুরায় চিকিৎসা ক্ষেত্রে চরম নৈরাজ্য চলছে। এখানে ব্যাঙের ছাতার মতো অবৈধ ক্লিনিক গজিয়ে উঠেছে। এগুলোতে কখনো নার্স ডাক্তার সেজে অপারেশন করে রোগী মেরে ফেলে, কখনো রোগীর শরীরে অন্য গ্রুপের রক্ত ঢুকিয়ে মেরে ফেলে। তারপর এদের কিছু জরিমানা হয়; কয়দিন ক্লিনিক বন্ধ থাকে; তারপর উপর মহলে টাকা দিয়ে আবারও খুলে যায় এসব ক্লিনিক। সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা অপর্যাপ্ত, সাধারণ রোগীদের ওষুধ, টেস্ট, অপারেশনসহ বেশিরভাগ চিকিৎসা হাসপাতালের বাইরে থেকে নিতে হয়। ফলে রোগীরা এসব ক্লিনিকে যেতে একভাবে বাধ্য হয় এবং অপচিকিৎসার শিকার হন। মাগুরা জেলায় চিকিৎসা ক্ষেত্রে নৈরাজ্য বন্ধ করে, সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে সমাবেশ থেকে আয়োজকরা দাবি জানান।

এম/এস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ