• বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৯:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ দেব প্রিয় দাশ জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত পানছড়িতে গুচ্ছগ্রামের গম না দেওয়াকে কেন্দ্র করে মারামারি, আহত ৩ কুকি চিনের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রাখাসহ পাহাড়ের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে পিসিএনপি’র সংবাদ সম্মেলন হালদার উজানে বালু উত্তোলনের দায়ে মানিকছড়িতে একজনকে জরিমানা সাজেকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষুধ বিতরণ করেছে সেনাবাহিনী সীমান্ত সড়কের রাস্তার পাশে পড়েছিল মরদেহ,উদ্ধার করলো পুলিশ নড়াইলে ইয়াবা ও গাঁজাসহ একজন গ্রেফতার মানিকছড়িতে তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থার আস্থা প্রকল্পের সভা অনুষ্টিত কাপ্তাই থানা পুলিশ এর পৃথক  অভিযানে চোলাই মদ ও গাজা সহ আটক : ৩ বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে পানছড়িতে বিশ্ব শান্তি কামনায় মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ শরিকদের সঙ্গে বসছেন প্রধানমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এমপির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলেন কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ এর নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা

মাগুরায স্বাস্থখাতের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে মাগুরায় গণ কমিটির মানববন্ধন

মাগুরা প্রতিনিধিঃ / ৩১৭ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২২

আজ ১৮ অক্টোবর মঙ্গলবার মাগুরা চৌরঙ্গীর মোড়ের প্রেসক্লাবের সামনে মাগুরা জেলা গণ কমিটি আয়োজিত মাগুরার স্বাস্থখাতের দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা ও ডাক্তারদের অতিরিক্ত ফী আদায়ের বিরুদ্ধে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত মানবন্ধন অনুষ্ঠানে বক্তারা মাগুরা জেলার চিহ্নিত অপচিকিৎসকদের বিরুদ্ধে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করার জন্য জেলা সিভিল সার্জনের সমালোচনা করেন, পাশাপাশি অপচিকিৎসায় মৃত রোগীদের ব্যাপারে যথাযথ তদন্ত না হওয়ায় একের পর এক রোগী মারা যাচ্ছে, এব্যাপারে প্রশাসনকে কার্যকর ভূমিকা রাখার জন্য বক্তারা আহবান জানান।

সমাবেশের সভাপতিত্ব করেন গণকমিটির আহ্বায়ক এটিএম মহব্বত আলী। সমাবেশ পরিচালনা করেন গণকমিটির সদস্য সচিব প্রকৌশলী শম্পা বসু। বক্তব্য রাখেন, গণকমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী নজরুল ইসলাম ফিরোজ, এটিএম আনিসুর রহমান, বাংলাদেশ জাসদ এর সাধারণ সম্পাদক কাজী জিন্নাতুর নূর, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি মাগুরা জেলা কমিটির সদস্য নিখিল মিত্র, সদস্য বাসারুল হায়দার বাচ্চু, আব্দুল গফুর মোল্যা।

গণকমিটির আহ্বায়ক এটিএম মহব্বত আলী বলেন, মাগুরায় চিকিৎসা ক্ষেত্রে চরম নৈরাজ্য চলছে। এখানে ব্যাঙের ছাতার মতো অবৈধ ক্লিনিক গজিয়ে উঠেছে। এগুলোতে কখনো নার্স ডাক্তার সেজে অপারেশন করে রোগী মেরে ফেলে, কখনো রোগীর শরীরে অন্য গ্রুপের রক্ত ঢুকিয়ে মেরে ফেলে। তারপর এদের কিছু জরিমানা হয়; কয়দিন ক্লিনিক বন্ধ থাকে; তারপর উপর মহলে টাকা দিয়ে আবারও খুলে যায় এসব ক্লিনিক। সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা অপর্যাপ্ত, সাধারণ রোগীদের ওষুধ, টেস্ট, অপারেশনসহ বেশিরভাগ চিকিৎসা হাসপাতালের বাইরে থেকে নিতে হয়। ফলে রোগীরা এসব ক্লিনিকে যেতে একভাবে বাধ্য হয় এবং অপচিকিৎসার শিকার হন। মাগুরা জেলায় চিকিৎসা ক্ষেত্রে নৈরাজ্য বন্ধ করে, সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে সমাবেশ থেকে আয়োজকরা দাবি জানান।

এম/এস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ