• সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
দুর্গম পাহাড়ি সড়কে মোটরসাইকেল চালকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সেনাবাহিনীর হেলমেট বিতরণ গাজায় ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নারী-শিশুসহ নিহত ৩৫ দুর্যোগ মোকাবেলায় দীঘিনালায় ২১ আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত বান্দরবানে কেএনএফ সন্দেহে গ্রেপ্তার ৪ জন রিমান্ডে গুইমারায় ঘূর্ণিঝড় রেমালের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি এড়ানোর লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের সতর্ক বার্তা জারি কাপ্তাই লগগেইট জয়কালী মন্দিরে সংবর্ধিত হলেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে তলিয়ে গেলো সুন্দরবনের পর্যটনকেন্দ্র কাপ্তাইয়ে টিসিবির পণ্য পেল ১৬৭৭ জন ঘুমধুম সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে একজনের পা বিচ্ছিন্ন গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রদলের সা: সম্পাদক কে হত্যার চেষ্টা চিকিৎসক ও নার্স সংকটে পানছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

মুক্তিযোদ্ধা রবার্ট রোনাল্ড পিন্টু চীর নিদ্রায় শায়িত

নিজস্ব সংবাদদাতা  / ৬৬১ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাষ্ট্রীয় মর্যদায় নিবেদন শেষে চন্দ্রঘোনা মিশন এলাকা খিয়াং পাড়া নিজ বাসভবন সম্মুখে প্রিয়তমা স্ত্রী আরতি বাড়ৈ এবং ছেলে নয়ন বাড়ৈ এর সমাধি পাশে রাঙ্গামাটি জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা জাতীর সুর্য্য সন্তান রবার্ট রোনাল্ড পিন্টুকে সমাধিস্ত করা হয়। বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) সকাল ১১ টায় কাপ্তাই উপজেলার চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতাল সংলগ্ন শহীদ মিনার চত্ত্বরে সর্বস্বরের শ্রদ্ধা নিবেদন এবং কাপ্তাই থানা পুলিশের উদ্যোগে গার্ড অফ অনার প্রদান শেষে এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে চির বিদায় জানানো হয়। দীর্ঘদিন ধরে জটিল লিভার সিরোসিস রোগে ভোগার পর গত ১২ আগস্ট বিকেল ৩ টায় তিনি চিকিৎসাধীন অবস্হায় চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতালে শেষ নি:শাষ ত্যাগ করেন। ৭০ বছর বয়সী এই মুক্তিযোদ্ধা ১ নং সেক্টরের অধীনে সম্মুখ সমরে দেশের জন্য যুদ্ধ করেছেন। তিনি রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের সদস্য সহ নানা সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন।

শেষ বিদায় বেলায় এই সময় কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মফিজুল হক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহান, কাপ্তাই থানার ওসি নাসির উদ্দীন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, ডেপুটি কমান্ডার ইস্রাফিল হোসেন, চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতালের পরিচালক ডা: প্রবীর খিয়াং, ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী বেবী, চট্রগ্রাম পার্বত্য চট্রগ্রাম আঞ্চলিক ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ সংঘের সভাপতি বিপ্লব মারমা সহ মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, প্রয়াতের পরিবার পরিজন এবং নানা শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্হিত থেকে তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

প্রয়াত রবার্ট রোনাল্ড পিন্টুর বড় ভাই মুক্তিযোদ্ধা চালর্স ডি কে বাড়ৈ( মানিক) জানান, যুদ্ধকালীন আমরা একই মায়ের সন্তান ৩ ভাই যুদ্ধে চলে যায় এবং চট্রগ্রাম কালুরঘাট ১ নং সেক্টরের অধীনে ব্রিজের ওপারে থেকে একসাথে শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে লড়াই করি এবং সর্বশেষ রাংগামাটি জেলার বরকল উপজেলার হরিনা নামক স্হানে শত্রুপক্ষের সাথে যুদ্ধ করতে গিয়ে আমার ভাই পিন্টু আহত হন। আজ সেই আমাদের মাঝে নেই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ