Header Border

ঢাকা, সোমবার, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং | ২২শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ৩০°সে

জাতি ধর্ম বর্ন নির্বিশেষে সকলকে আসন্ন ঈদের আগাম শুভেচ্ছা জানিয়েছেন: মেমং মারমা

দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমা আসন্ন ঈদ’উল ফিতরের ঈদ উপলক্ষে জাতি ধর্ম বর্ন নির্বিশেষে উপজেলার সকল স্থরের মানুষকে আগাম ঈদ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

দেশে মহামারী করোনা শুরুর পর থেকে একজন সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে নিবেদিত ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি ।নিজের পরিবারের চেয়ে ও বেশী খোজ রাখার চেষ্টা করছেন নিজ উপজেলার অসহায় মানুষ গুলোর। রাত দিন ছুটেই চলছেন প্রান্তিক এলাকায় করোনার কারনে গৃহবন্ধ কর্মহীন মানুষ গুলোর বাড়িতে ।

ঈদ শুভেচ্ছা জানানোর কালে তিনি প্রতিবেদককে বলেন,ধর্ম যার যার উৎসব সবার।বিশ্ব মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব মাহে রমজান।একটি মাস সিয়াম সাধনার পর খুশির এই ঈদ আসে।

তাই সকল সংস্কার,বিবেধ ভুলে মানবতার লক্ষে এক হয়ে আসন্ন ঈদের আনন্দ সবাইকে সমান ভাবে উপভোগ করার আহবান জানান তিনি।তবে মহামারী করোনার বিষয়টি বিবেচনা করে এবং সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে যথাসম্ভব নিজ বাড়িতেই এবারের ঈদ আনন্দ উপভোগ করার জন্য তিনি অনুরোধ জানিয়েছেন।

তিঁনি আরো বলেন,রমজানে একমাস সিয়াম সাধনার মাধ্যমে মানুষের আত্মশুদ্ধি হয়।মুসলমানদের পাশাপাশি রমজানে সকল ধর্মের মানুষের মনে আত্মশুদ্ধি আসে। রোজাদার ব্যক্তিদেরকে ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলেই সম্মান করে।

করোনায় নিজের নিরাপত্তা ও পরিবারের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,মন চায় পরিবারকে নিয়ে নিরাপদে থাকতে।কিন্তু সাধারন মানুষগুলো ভোটের মাধ্যমে তাদের সুখ দুঃখের দায়িত ত অর্পিত করেছেন তার উপর।তাদের ভালোবাসার কথা ভাবলে পরিবারের কথা স্বরনে থাকেনা।মনে হয় প্রতিটি অসহায় পরিবারই তার পরিবার। তাই চেষ্টা করছেন করোনা সংকটে তাদের পাশে থেকে তাদের দেয়া অর্পিত দায়িত্ব পালন করতে।

সবশেষে তিনি বলেন,পবিত্র ঈদ সকলের পরিবারে বয়ে আনুক অনাবিল আনন্দ, সুখ-সমৃদ্ধি।বিশেষ করে তিনি প্রত্যাশা করেন মহামারী করোনা থেকে দেশের মানুষকে রক্ষা করতে রমজানে রোজাদারদের প্রার্থনা যেন মহান সৃষ্টি কর্তা কবুল করেন।সকল ধর্মের মানুষের মাঝে ফিরে আসুক পূর্বের ন্যায় স্বাভাবিক জিবন যাপন।মুছে যাক করোনার সব গ্লানি।সুস্থ হয়ে বেচেঁ থাকুক পৃথিবীর মানুষ।

আসন্ন ঈদ উপলক্ষে তিনি উপজেলার বেশ কিছু দুস্থ ,গরিব ও অসহায়দের ঈদ উদযাপনের জন্য ইতিমধ্যেই সহায়তা প্রদান করেছেন।

সবশেষে তিঁনি সকলের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল কামনা করে বলেন, রমজানের রোজাদারদের ইফতার এত সুস্বাধু যা অন্যসময় হয়না।তাঁর ধারনা এ যেন বিধাতার নেয়ামত।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিলো সেনাবাহিনী
কাপ্তাই থানার ওসি সহ কাপ্তাইয়ে আরোও ৯ জন করোনায় আক্রান্ত
প্রশাসন ক্যাডারে মহালছড়ির কৃতি সন্তান হিল্লোল চাকমা
ভুমি সচিবের প্রশংসায় ভাসছেন মাটিরাঙার এসিল্যান্ড ফারজানা ববি
মানিকছড়ির প্রথম করোনাজয়ী অশেষকে ফুলেল শুভেচ্ছা
সদস্য সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন নাগরিক পরিষদের

আরও খবর

সম্পাদক  প্রকাশক : এম শাহীন আলম।