• সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ১১:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কাপ্তাইয়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয়  ফুটবল টুর্ণামেন্ট শুরু  কাপ্তাই বন বিভাগের পক্ষ হতে শিক্ষার্থীদের গাছের চারা বিতরণ  কাপ্তাই রাহাত স্টোরে ৩৫ প্রকার চা এবং হরেক রকম পান পাওয়া যায়  খাগড়াছড়ি গুইমারা থানা পুলিশের অভিযানে গাজাসহ আটক-২ রাজস্থলীতে উৎসব মুখর পরিবেশে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন কাপ্তাইয়ের  শিলছড়িতে সামাজিক শৃঙ্খলা কমিটি গঠন  বীর মুক্তিযোদ্ধার পরলোকগমন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সতকার

টমটম দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শিশু ‘আবির’ এর খবর কেউ রাখেনি!

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, নিজস্ব সংবাদদাতা, লামা / ২৩০ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শনিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২২

টমটম এর ধাক্কায় গুরুতর আহত শিশু আরাফাত ইসলাম আবির

লামা উপজেলার রূপসীপাড়া ইউনিয়নের বৈক্ষমপাড়া এলাকায় টমটম গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর আহত চার বছরের শিশু আরাফাত ইসলাম আবির এর খবর কেউ রাখেনি। প্রচন্ড ব্যথা, মৃত্যু যন্ত্রণা ও অর্থের অভাবে বিনা চিকিৎসায় পার্শ্ববর্তী চকরিয়া উপজেলার ‘ম্যাক্স প্রাইভেট হাসপাতালে’ ছটপট করছে। দারিদ্র অসহায় পরিবারটি শিশুটিকে বাঁচাতে সহযোগিতা কামনা করেছে।

আহত শিশুর পরিবারের সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (০৭ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৩টায় লামা-রূপসীপাড়া সড়কের বৈক্ষম পাড়া এলাকায় হানিফের বাড়ির সামনে বেপরোয়া গতিতে আসা একটি টমটম শিশুটিকে ধাক্কা দেয়। আহত আরাফাত ইসলাম আবিরকে তার স্বজনরা ও স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে লামা সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসে। শিশুটির অবস্থার আশংকাজনক হওয়ায় জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক আরাফাত ইসলাম আবিরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে রেফার করে। এরপর শিশুটির পরিবার আবিরকে চকরিয়া ম্যাক্স প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে সে ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত শিশু আরাফাত ইসলাম আবির (৪) লামা পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের ছাগলখাইয়া এলাকার মোঃ অলি উল্লাহর ছেলে। আবির এর বাবা অলি উল্লাহ বলেন, গত ৭ এপ্রিল বৃহস্পতিবার আবির রূপসীপাড়ায় তার নানার বাড়িতে বেড়াতে যায়। নানির বাড়ি থেকে বিকেল সাড়ে ৩টায় খালার বাসায় যাওয়ার পথে রাস্তা পারাপারের সময় বৈক্ষমপাড়া এলাকায় টমটম চালক মোঃ সুরুজ্জামান শিশুটিকে ধাক্কা দেয় এবং টমটম নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। আবির মাথা, দুই হাত, দুই পা, বুক ও পিঠে প্রচন্ড আঘাত পায়। প্রচুর রক্তক্ষরন হয়েছে তার। আমার সন্তান এখন জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছে।

তিনি আরো বলেন, আবির রাস্তার পাশে দাঁড়ানো ছিল। যাত্রীবাহী টমটম গাড়িটি তাকে ধাক্কা দিয়ে গুরুতর জখম করে। ঘটনার পর থেকে টমটম মালিক বা ড্রাইভার কেউ শিশুটির কোন খোঁজখবর নেয়নি। টমটম চালক মোঃ সুরুজ্জামান আর টমটমের মালিক রূপসীপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবুল বাসার এর ছেলে মোঃ হোসেন।

এই বিষয়ে রূপসীপাড়া ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ শাহ আলম বলেন, এই রোডে গাড়ি গুলো ট্রাফিক আইন মানেনা। বিশেষ করে টমটম গুলো খুবই বেপরোয়া গতিতে চলে। আর ছোট ছোট অপ্রাপ্ত বয়স্ক বাচ্চারা টমটম চালায়। দুর্ঘটনার পর থেকে টমটম চালক, মালিক বা টমটম মালিক সমিতি কেউ শিশুটির খবর নেয়নি। টমটম ড্রাইভার ও মালিককে আইনের আওতায় আনা প্রয়োজন।

এম/এস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ