• সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ১১:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম
খাগড়াছড়িতে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল বেলকুচি উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজকে গড়ে তুলে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভুমিকা রাথতে হবে -বাবুল দাস কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত কাপ্তাই বিএসপিআই শিক্ষার্থীদের ওপর ফের হামলা, ৪ জন আহত এম কে বাঘাবাড়ী ঘি কোম্পানির উৎপাদনকারী মো: কামাল উদ্দিনের ১ বছরের কারাদণ্ড কোটা সংস্কারের দাবিতে  কাপ্তাই বিএসপিআই এ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

খাগড়াছড়িতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের ঐতিহ্যবাহী বর্ষা উৎসব (আলপালনী) উদযাপিত

ছোটন বিশ্বাস, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: / ১৬২ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪

 

ছোটন বিশ্বাস, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি।। খাগড়াছড়িতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের বর্ণিল আয়োজনে পার্বত্য চট্টগ্রামের ত্রিপুরা,মারমা ও চাকমা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের ঐতিহ্যবাহী বর্ষা উৎসব (আলপালনী) উদযাপিত হয়েছে।

শুক্রবার (২১জুন) বিকাল ৫টায় খাগড়াছড়ি জেলা সদরস্থ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের অডিটোরিয়ামে এ উপলক্ষে নানান অনুষ্ঠানমালা মধ্য দিয়ে ত্রিপুরা,মারমা ও চাকমা সম্প্রদায়ের তাদের নিজস্ব ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এ অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের সদস্য ও সংস্কৃতি বিভাগের আহ্বায়ক নিলোৎপল খীসা’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক মোঃ সহিদুজ্জামান। এতে অনুষ্ঠানের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক ও গবেষক প্রভাংশু ত্রিপুরা।

এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খাগড়াছড়ি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের নির্বাহী সদস্য এ্যাডভোকেট অংসুইথুই মারমা, সদর উপজেলা প্রাক্তন চেয়ারম্যান মো. শানে আলম প্রমূখ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ সহিদুজ্জামান বলেন, এই পাহাড়ে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী তাদের নিজস্ব বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতিতে ভরপুর। নিজস্ব সংস্কৃতিকে যদি আমরা ধরে রাখতে পারি। আমাদের সংস্কৃতি ধারণ করা ও সম্প্রসারণ করার জন্য সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সারাবিশ্বে আমাদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে ছড়িয়ে দিতে হবে। এজন্য আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

আলোচনা সভা শেষে, ত্রিপুরা,চাকমা ও মারমা সম্প্রদায়ের নৃত্যশিল্পীরা মনোগ্ধ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ