• শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৪:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কাপ্তাই থানা পুলিশ এর অভিযানে নোয়াখালী এবং ফেনী হতে গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত দুই আসামি গ্রেফতার রাজস্থলী উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্বভার গ্রহণ রাজারহাটে নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনে কুড়িগ্রামের এমপি কাপ্তাইয়ে নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের বরণ ও বিদায় মামলায় কেউ জেলে বাকীরা পলাতক, ফাঁকা পেয়ে দুই গেরস্তের বাড়ি লুট কাপ্তাই সড়ক দূর্ঘটনায় বন প্রহরী নিহত কাপ্তাই মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত  সাজেকে বিদেশি মদসহ আটক ৫ গুইমারায় সড়ক দুর্ঘটনায় নারী ও শিশুসহ আহত ২০ আশংকা জনক-২ খাগড়াছড়িতে মোটর সাইকেল এ প্রাণ গেলো যুবকের ঈদের ছুটিতে আলুটিলা সহ বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র গুলোতে বেড়েছে পর্যটক সমাগম বাঘাইছড়িতে আঞ্চলিক দলের গোলাগুলিতে শান্তি পরিবহনের সুপারভাইজার নিহত

মানুষকে কোপানোই তাঁর নেশা

মাসুদ রানা, স্টাফ রিপোর্টার / ১৬৯ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : শনিবার, ৭ অক্টোবর, ২০২৩

এতদিন নাটকের সংলাপেই কেবল শোভা পাচ্ছিল “কোপা সামসু”নামের ডায়লগটি। এবার বাস্তবে পাওয়া গেল ফা‌হিম ওরফে চাপাতি ফাহিম। বয়স ২৫ বা ২৬। মানুষকে কোপা‌নোই যেন তাঁর নেশা। ফাহিমের জীবন চলে রাজধানী শেওড়াপাড়া এলাকায় চাঁদাবাজি ক‌রে। চাঁদা না দি‌লেই চাপা‌তি দি‌য়ে কোপান তিনি। অব‌শে‌ষে কোপা‌তে গিয়েই ধরা পড়ল পু‌লি‌শের হা‌তে।

শুক্রবার (৬ অক্টোবর) মিরপুরের শেওড়াপাড়ায় চাঁদা না পেয়ে এক মিষ্টি ব্যবসায়ীকে কোপানোর অভিযোগে রিভালবার ও চাপাতিসহ ফাহিম আহম্মেদ ওরফে চাপাতি ফাহিমকে গ্রেপ্তার করে মিরপুর থানা-পুলিশ।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন আজ শনিবার ফাহিমকে গ্রেপ্তারের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, কেউ চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালেই তাঁকে কোপাত ফাহিম। চাঁদাবাজির সময় হাতে চাপাতি থাকে বলে তাঁকে সবাই চাপাতি ফাহিম নামেই ডাকে।

ওসি মহসীন বলেন, দুই মাস আগেও ফাহিমকে চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। সপ্তাহখানেক আগে জেল থেকে ছাড়া পেয়ে ফের চাঁদাবাজি শুরু করেন। ফাহিম কয়েকদিন ধরে শেওড়াপাড়ার এক দোকানে চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানানোয় শুক্রবার দোকান মালিকে চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে দোকান থেকে টাকা নিয়ে যায়। পরে ভুক্তভোগীরা ৯৯৯-এ কল করলে শেওড়াপাড়া এলাকা থেকে ফাহিমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে আহত দোকান মা‌লিক রাজধানীর এক‌টি বেসরকারি হাসপাতা‌লে চি‌কিৎসাধীন। চি‌কিৎসকদের বরাত দিয়ে দোকান মালিকের বড় ভাই নূরে আলম সিদ্দিক জানান, ভুক্তভোগী পু‌রোপু‌রি সুস্থ হলেও তিনি দুটি হাত স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা হারাতে পারে।

ওসি মহসীন বলেন, ফাহিমের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ শেওড়াপাড়ার লোকজন। তাঁর বিরু‌দ্ধে আগেও ৫টি মামলা র‌য়েছে। গ্রেপ্তারও হয়ে‌ছেন ক‌য়েকবার।

ফাহিমের দেওয়া তথ্যে শুক্রবার রাতেই তাঁর বাসা থেকে একটি রিভালবার ও চাপাতি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান ওসি মহসীন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ