Header Border

ঢাকা, সোমবার, ২৫শে মে, ২০২০ ইং | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ৩৩°সে
শিরোনাম :
চোলাই মদসহ মাগুরায় দুই মাদক বিক্রেতা গ্রেফতার পানছড়িতে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলো জুনাব আলী ফাউন্ডেশন রাঙামাটিবাসীকে কাউখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলমের ঈদ শুভেচ্ছা রামগড় উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের প্রতি ঈদ শুভেচ্ছা জানান করেন উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব কুমার কার্বারী  ক্রান্তিলগ্নে ঈদ খাদ্য সামগ্রী দিলেন বেতবুনিয়া ইউনিয়ন ৩নং ওয়ার্ড শাখা ছাত্রলীগ মেয়র রফিক ও দিদারুল আলমের পক্ষ থেকে পানছড়ি নেতাকর্মীদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ পীরগঞ্জে চাঁদ রাতে চাঁদের হাসি দেখতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের হাতে ঈদের উপহার হিলির আদিবাসী পল্লীতে তৃতীয় শ্রেনীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ মাদারীপুরে নতুন করে ২১জনের করোনা শনাক্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ হতে মাদারীপুরে খাদ্য সামগ্রী বিতরন

পাঁচখাইন মহিউল উলুম এতিমখানার ১৪০ এতিম মানবেতর জীবণ যাপন

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাউজানঃ

পাঁচখাইন মহিউল উলুম এতিমখানা ও হেফজখানার ১৪০ এতিম মানবেতর জীবণ যাপন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিম্ন মানের খাওয়ার ও অপরিমান খাওয়ার প্রদানসহ অর্থ লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১২ অক্টোবর সরেজমিন পরিদর্শন কালে নানা অনিয়মের চিত্র দেখা যায়। স্থানীয় লোকজন ও এতিম ছাত্রদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত এক সাপ্তাহ যাবত এতিম খানায় কোন লোকজন নেই এখানে। রান্না করার বাবুচি দিয়ে দেখ ভালোর ব্যবস্থা রেখে উদাও হয়ে যায় দায়িত্বশীল কর্তারা।এতিম খানার সুপার থাকেন চট্টগ্রাম শহরে। মাসে মাসে আসেন হিসার নিকাশ করে টাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য।

মহিউল উলুম এতিমখানা ও হেফজখানা সংলগ্নে রয়েছে হযরত আবদুল কাদের জিলানী (রঃ) একটি মাজার। মাজারের দানবাক্সে ভক্তদের দেয়া চাঁদা জমা হয় প্রায় ৫০ হাজার থেকে এক লাখ টাকা। ঐ টাকা এতিমদের জন্য দীর্ঘ দিন যাবত ব্যয় করা হতো। কিন্তু বর্তমানে কিছু টাকা ব্যয় করলেও বাকী সব টাকা চলে যায় সুপারের পকেটে।

উপজেলা সমাজ সেবা অফিস সূত্রে জানা যায়, মহিউল উলুম এতিমখানা ও হেফজখানার জন্য ৭০জন সরকারের ক্যাপিটাল গ্র্যান্ড প্রাপ্ত এতিম সুবিধা পেয়ে থাকে। এছাড়া স্থানীয় সমাজ সেবক আবদুল সালাম প্রতিবছর এক’শ বস্তা চাউল দিয়ে থাকে। তিনি বর্তমানে দিচ্ছে ৪০ বস্তা চাউল। এছাড়া প্রতি সাপ্তাহিক এতিমদের দিয়ে পাড়ায় পাড়ায় উঠানো হয় চাউল ও অর্থ। এতিমের জন্য প্রায় সময় সমাজের বৃক্তশালীরা দাওয়া দিয়ে থাকে। তারপরও কেন অর্ধ অনাহারে থাকতে হয় এতিম এসব শিশুদের।

এতিম শিশু মো. জাহেদুল আলম জানান, খাবার দেয়া হয় খুবই অল্প। ভাতের সাথে কোন সময় সবজী আবার কোনদিন ডিম দেয়া হয়। সেই জানায় আজ শুধু কদু সবজী দিয়ে ভাত দিয়েছে। পেট ভরে খেতে পারি না। একই ভাবে এতিম ইয়াছিন আলী, ফরিদুল ইসলাম, সাকিবুল ইসলাম জানান, আমরা পেট ভরে খেতে চাই। আমাদের খাবার দিন। আমরা খুবই কষ্টে জীবণ যাপন করছি।

দায়িত্বে থাকা একজন শিক্ষক মোহাম্মাদ রেদোয়ান জানান, তিনি একাই সামলান ১৪০ শিশুকে। প্রশ্ন হচ্ছে ১৪০ জনকে একজন দিয়ে দেখ ভাল কতটা যুক্তিযুক্ত। স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুল খালেক মেম্বার জানান, এতিমরা মানেবেতর জীবণ যাপন করছে শুনে আমি বার বার ছুটে আসি এতিমখানায়। পরিচালনা পরিষদের সাথে এই নিয়ে অনেকবার বাগবিতণ্ডা হয়েছে। আসলে তারা টাকার লোভে এতিমখানা খুলে এতিমের টাকা লুটেপুটে খাচ্ছে। সরকারী ও বেসরকারি যে অর্থ আসে, সে অর্থ দিয়ে ৫০০ এতিমের ভরণ পোষণ করা যায়।

এতিম খানার অনিয়ম সম্পর্কে স্থানীয় চেয়ারম্যান ভূপেষ বড়ুয়া জানান, এতিমখানার অনিয়ম ও এতিমদের মানবেতর জীবন যাপনের কথা শুনেছি। যারা অর্পিত দায়িত্ব নিয়ে এতিমদের অবহেলা করে তাদের শাস্তি হওয়া দরকার। তিনি বলেন প্রশাসন যদি মনে করে এতিমখানাটি ইউনিয়ন পরিষদের আওলতায় নিয়ে আসতে তাহলে আমি সুন্দর ভাবে পারিচালনা করতে পারি।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

কাপ্তাইয়ের নন এমপিও ভুক্ত শিক্ষক কর্মচারীরা মানবেতর জীবন যাপন করছে
করোনায় আক্রান্ত রাঙ্গামাটির মেয়ে “ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রী খীসার” আবেগঘন স্টেটাস
সরকারের নির্দেশনা মেনে পাহাড়ি সম্প্রদায় অনুষ্ঠানিক ঐতিহ্যবাহী ফুল বিঝু উৎসব পালন
মায় অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত পুরো পাড়াবাসি, ১ শিশুর মৃত্যু
মহালছড়ির হ্লাশিংমং চৌধুরীর আমের বাগানসহ মিশ্রফলের সফল চাষী
সম্প্রীতি কনসার্টের মধ্যদিয়ে শেষ হল ২দিন ব্যাপী পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২২তম বর্ষপূর্তী

আরও খবর

সম্পাদক  প্রকাশক : এম শাহীন আলম।