• শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৮:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মাটিরাঙায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন ইউএনও আলীকদম সেনা জোন (৩১ বীর) কর্তৃক ২,৬৬,৬০৫ টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান নিজের কণ্ঠস্বর বিক্রি করে সফলতা অর্জন রামগড়ে বাগান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার রামগড় কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের জঙ্গলে পড়েছিল শ্রমিকের মরদেহ কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধ্বসের  আজ ৭ বছর : এখনোও ঝুঁকিতে বসবাস করছে বহু মানুষ রাজধানীর পল্টনে বহুতল ভবনে আগুন চট্রগ্রামে শপথ নিলেন রাজস্থলী উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা পাংশায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ৬ আসামি গ্রেপ্তার  রামগড় ৪৩ বিজিবির অভিযানে ভারতীয় মদ জব্দ কাপ্তাই নতুনবাজার আনন্দ মেলা গরুর বাজার: পাহাড়ি গরুর চাহিদা বেশী ক্রেতাদের কাপ্তাই সেনা জোনের উদ্যোগে  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান

রাজবাড়ীতে আলোচিত রিপন হত্যা মামলার রায়, ১জনের মৃত্যুদন্ড

সাইফুর রহমান পারভেজ, গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) / ৮৮০ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : সোমবার, ৭ আগস্ট, ২০২৩

সাইফুর রহমান পারভেজ

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সাইফুল ইসলাম ওরফে রিপন মণ্ডল হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রোববার (৬ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ মোছা. জাকিয়া পারভীন এ রায় দেন। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ১২ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম মো. জামাল পত্তনদার। তিনি উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া এলাকার ফেলু মোল্লা পাড়ার হোসেন পত্তনদারের ছেলে।

আদালত সূত্র জানায়, সাইফুল ইসলাম রিপন ঢাকার সাউথ ইষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। ২০১৪ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাতের খাবার খেয়ে রিপন বন্ধু ফরিদের সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হন। পরে ৭ সেপ্টেম্বর রাত পৌনে ৩টার দিকে জামাল পত্তনদার, মো. ইয়াসিন শেখ, মো. শহিদ, মো. সুমন শেখ, হারুনসহ অজ্ঞাতনামা ৮-১০ জন দৌলতদিয়া পল্লিতে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে রিপনকে হত্যা করে। পরে রিপনের মামা খলিল বাদী হয়ে মামলা করেন। শুনানি শেষে আদালত এ রায় দেন।

এদিকে রায় ঘোষণার পর আদালত প্রাঙ্গণে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন রিপন মণ্ডলের বাবা মোহন মণ্ডলসহ স্বজনরা। স্বাক্ষ্যপ্রমান থাকার পরও তারা ন্যায় বিচার পাননি বলে অভিযোগ করেন।

রিপনের চাচাতো ভাই সোহেল মণ্ডল বলেন, সাক্ষপ্রমাণের পরও আমরা আদালতে ন্যায় বিচার পাইনি। একজন ছাড়া সব আসামি খালাস হয়েছে। আমরা উচ্চ আদালতে যাবো।

আসামিপক্ষের আইনজীবী আশরাফুল হাসান আশা বলেন, আদালত একজনকে মৃত্যুদণ্ড ও বাকিদের খালাস দিয়েছেন। এ রায়ের মাধ্যমে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ