• শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৯:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
খাগড়াছড়িতে পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল বেলকুচি উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে নিজকে গড়ে তুলে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে ভুমিকা রাথতে হবে -বাবুল দাস কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত কাপ্তাই বিএসপিআই শিক্ষার্থীদের ওপর ফের হামলা, ৪ জন আহত এম কে বাঘাবাড়ী ঘি কোম্পানির উৎপাদনকারী মো: কামাল উদ্দিনের ১ বছরের কারাদণ্ড কোটা সংস্কারের দাবিতে  কাপ্তাই বিএসপিআই এ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল দিনেদুপুরে কৃষকের বাড়িতে হামলা লুটপাট রাঙামাটি সদর জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান আলীকদম সেনা জোন কর্তৃক মানবিক সহায়তা প্রদান পানছড়ি মাদ্রাসায় অব্যবস্থাপনা ও অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন খাগড়াছড়িতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

মহেশখালীতে বনকর্মীদের উপর হামলা, রেঞ্জ কর্মকর্তাসহ আহত-৬

হ্যাপী করিম, স্টাফ রিপোর্টার (মহেশখালী) কক্সবাজার: / ১৬৫ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৩ মে, ২০২৩

কক্সবাজারের মহেশখালীতে পাহাড়ি এলাকায় বনায়নের জন্য বাগান সৃজনের কাজ করার সময় বনকর্মীদের ওপর হামলা করেছে ভূমি দস্যুরা। এ সময় মহেশখালী রেঞ্জ কর্মকর্তাসহ ৬ জন আহত হয়েছেন।

২১ শে মে, রোববার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের নারকাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলায় বন বিভাগের মহেশখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা খান জুলফিকার আলী (৩৯), মুদিরছড়া বিট কর্মকর্তা মোহাম্মদ সানাউল্লাহ (৩৮), শাপলাপুর বিট কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরে আলম মিয়া (৩৬), নৌকাচালক মোহাম্মদ নুরুল আলম (৪২), শ্রমিক মোহাম্মদ শামসুল আলম ( ৫০) ও তাঁর ছেলে গুরা মিয়া (৩০) আহত হন। এর মধ্যে গুরা মিয়াকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। বাকি পাঁচজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য মোহাম্মদ শামসুল আলমকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বন বিভাগের মহেশখালী রেঞ্জ কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, নারকাটা এলাকায় সংরক্ষিত বনের ভেতরে বাগান করার জন্য বনকর্মী ও শ্রমিকেরা জঙ্গল কেটে বন পরিষ্কার করছিলেন। এ সময় মোহাম্মদ জয়নাল নামের এক দখলদার লোকজন নিয়ে বনকর্মী ও শ্রমিকদের ওপর হামলা চালান।

একপর্যায়ে পেছন থেকে ধাওয়া করে বনকর্মীরা মোহাম্মদ জয়নালকে আটক করেন। কিন্তু থানায় নিয়ে যাওয়ার সময় তাঁর আত্মীয়রা রেঞ্জ কর্মকর্তা ও বনকর্মীদের মারধর করে মোহাম্মদ জয়নালকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রেঞ্জ কর্মকর্তা খান জুলফিকার আলী দুটি ফাঁকা গুলি করেন।

এ বিষয়ে রেঞ্জ কর্মকর্তা খান জুলফিকার আলী জানান. মোহাম্মদ জয়নাল প্রায় এক একর বনভূমি দখলে রেখে ছন খোলা করছিলেন। সেখানে বাগানের কাজ করতে গেলে তিনি হামলা চালান।

পার্বত্যকণ্ঠ নিউজ/এমএস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ