• শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
মহালছড়িতে বৈসাবি ফুটবল টুর্নামেন্টে অংম্রাং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন বান্দরবানে জলবায়ু ধর্মঘট করেছে ইয়ুথনেট বান্দরবানে যৌথ অভিযানে গণগ্রেফতার ও হয়রানির প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে পিসিপির বিক্ষোভ মিছিল মানিকছড়িতে সাংগ্রাই উপলক্ষে ঐতিহ্যবাহী বলি খেলা অনুষ্ঠিত সামাজিক অনুষ্ঠানে প্রার্থীদের সবর উপস্থিতি অসাম্প্রদায়িক ও স্মার্ট জনপদ গড়ার অঙ্গীকার তীব্র দাবদাহ বিদ্যুৎ বিভ্রাট পোল্ট্রি খামারে হাঁসফাঁস অবস্থা! খাগড়াছড়ি পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের সম্মেলন ২০ এপ্রিল ব্যাংকে হামলা: ১৮ নারীসহ ৫৩ কেএনএফ সন্ত্রাসীর রিমান্ড মঞ্জুর মানিকছড়িতে মোবাইল কোর্টে জরিমানা নতুন বাজার আনন্দ মেলা খেলার মাঠে গোলবার প্রদান করলেন কাপ্তাই সেনা জোন

দোকানে একা পেয়ে শিশুকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা, আসামী গ্রেফতার

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ব্যুরো প্রধান, বান্দরবান: / ৫৬৭ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : রবিবার, ১৯ মার্চ, ২০২৩

বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাইতংয়ে দিদারুল আলম (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে কন্যা শিশু শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার করেছে লামা থানা পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে এই ঘটনায় শিশু কন্যা মা বাদী হয়ে লামা থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছে। শনিবার দিনে ফাইতং ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের আমতলী পাড়া দোকানে এই ঘটনা ঘটে।

শিশু শ্লীলতাহানির ঘটনায় গ্রেফতার মোঃ দিদারুল আলম ফাইতং ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড খেদারবান এলাকার মৃত মাহবুবুল আলম ফকির এর ছেলে এবং তিনি পেশায় একজন টমটম চালক।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, বাদীর বাড়ি সংলগ্ন একটি মুদির দোকান করে। ভিকটিমের মা নিজের কাজে পার্শ্ববর্তী ভাঙ্গা ব্রিজ নামক স্থানে গেলে মেয়ে শিশুটিকে দোকানে বসিয়ে যায়। ভিকটিম’কে দোকানে একা পেয়ে অভিযুক্ত দিদারুল আলম জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে তাকে শ্লীলতাহানি করে। বেলা ১১টার দিকে স্বজনরা ভিকটিমের মাকে ফোন করে বিষয়টি জানায়।

ভিকটিমের মা জানায়, মেয়ে কান্নাকাটি করতে থাকলে এবং স্থানীয় লোকজন আসতে দেখে দিদারুল ভিকটিম’কে ছেড়ে টমটম দিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। মেয়ের মুখে ঘটনা শুনে জরুরী সেবা ৯৯৯ এর ফোন করিলে ফাইতং পুলিশ ফাঁড়ি হইতে পুলিশ এসে আমার মেয়েকে উদ্ধার করে হেফাজতে নেয় এবং অভিযান চালিয়ে আসামী দিদারুল কে গ্রেফতার করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মোঃ জুনাইয়েদ বলেন, বাদী জরুরী সেবা ৯৯৯ এর ফোন করলে ফাইতং পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ শামীম শেখ নেতৃত্বে পুলিশের টিম অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতার করে। ঘটনার ৪ ঘন্টা না পেরুতে ফাঁড়ি পুলিশের এএসআই মাসুদ রানা অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ধর্ষককে ভাঙ্গাব্রিজ এলাকা থেকে গ্রেফতার করে লামা থানায় নিয়ে যাই।

লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শহীদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আসামীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) আইন ২০০৩ এর ১০ ধারায় মামলা শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। গ্রেফতার আসামীকে আদালতে প্রেরণ করা হলে আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করে।

এম/এস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ