রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১২:২০ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

মহেশখালীতে শিপ্লব দে গলাকেটে হত্যায় জড়িত আসামী গ্রেপ্তার

হ্যাপী করিম (মহেশখালী) কক্সবাজার:
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৭ জুন, ২০২২
  • ৩৬ জন পড়েছেন

মহেশখালীতে শিপ্লব দে (১৬) নামে এক কিশোর’কে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় জড়িত আসামী তাজুম উদ্দিন (২০) কে গ্রেপ্তার করেছে মহেশখালী থানা পুলিশ। ১ জুন বুধবার দুপুরে ছোট মহেশখালী মোহাম্মদপুর তেলিপাড়া হতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে গত ৩০ মে সোমবার বিকেলে শাপলাপুরের প্রধান সড়কে না’কাটা জিরি পাহাড়ী ডালায় থেকে শিপ্লব দে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।গ্রেপ্তারকৃত আসামী তাজুম উদ্দিন তেলিপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল করিমের ছেলে।

মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আবদুল হাই পিপিএম জানান, গত সোমবার (৩০ মে) সকাল নয়টার দিকে মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর সড়কের না’কাটা জিরি পাহাড়ী ডালায় একটি মরদেহ দেখতে পায় পান চাষীরা। পরে শিপ্লব দে পরিবারের লোকজন মরদেহটি দেখতে গেলে শনাক্ত করেন। খবর পেয়ে মহেশখালী থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এই হত্যাকাণ্ডের পর দিন নিহতের পিতা জীবন কুমার দে বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় একই গ্রামের বীপ্রজিত দে(১৯) জাবেদ (২২), অন্তর দে’সহ অজ্ঞাত ৬/৭ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যার রহস্য উদঘাটন ও আসামীদের গ্রেপ্তারে গোয়েন্দা তৎপরতায় নামে পুলিশ একটি দল। হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হওয়ার পর প্রধান আসামি তার এক আত্মীয়ের বাসায় সপরিবারে আত্মগোপনে থাকাবস্থায় আটক করে পুলিশ।
মামলার বাদীর বরাতে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আবদুল হাই পিপিএম বলেন, শিপ্লব দে সাথে আটক হওয়া তাজুম উদ্দিনের বন্ধুদের সাথে মনোমালিন্য ও অভ্যন্তরীন পূর্ব শত্রুতা ছিল। হত্যাকাণ্ডের শিপ্লব দে’কে মহেশখালী হাসপাতাল থেকে  ছাগল দিবে বলে ডেকে নিয়ে যায় শাপলাপুরের প্রধান সড়কে না’কাটা জিরি পাহাড়ী ডালায় আসামীরা। পরে আসামীরা পরিকল্পিতভাবে ধারালো অস্ত্র চাকু দিয়ে কুপিয়ে ও গলাকেটে শিপ্লব দে’কে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে যায়। এই খুনে জড়িত তাজুম উদ্দিন, হত্যা কান্ডে ব্যবহৃত টমটম গাড়ী, ভিকটিমের মোবাইল ফোন, স্যন্ডেল উদ্ধার আটক হয়েছে, অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রেখেছে, মামলা বর্তমান তদন্তধীন।
এম/এস

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com