বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

আবারো ঘর নির্মাণ করে দিয়ে প্রশংসিত জোন অধিনায়ক এ বি এম জাহিদুল করিম

লোকমান হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • প্রকাশিত : বুধবার, ২৫ মে, ২০২২
  • ১৮১ জন পড়েছেন

২৫ মে বুধবার বেলা ১২:০০ ঘটিকায় খাগড়াছড়ির তবলছড়ি ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড ইসলামপুর এলাকায় অসহায় বৃদ্ধ মো:সিরাজুল ইসলামকে নতুন একটি ঘর নির্মাণ করে সেই ঘর বুঝিয়ে দেন ২৩ বিজিবি যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল এ বি এম জাহিদুল করিম।

গত পবিত্র রমজানে ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরনের সময় যথাউপযুক্ত অসহায় যেন পায় তা পর্যবেক্ষণ ও বিতরণকালে অসহায় দেখে বৃদ্ধ সিরাজ মিয়ার বাড়িতে গিয়ে জোন অধিনায়ক দেখেন যে পরিবার পরিজন নিয়ে থাকার মতো একটি ঘরও নেই, অসহায় এই বৃদ্ধ সিরাজ মিয়া জোন অধিনায়ককে জানায় জনপ্রতিনিধিসহ অনেকের ধারস্থ হয়েই কোন লাভ হয়নাই,স্ত্রী আর ছেলে সন্তান নিয়ে এই ভাংগা ঘরের মধ্যে বাধ্য হয়ে থাকতে হচ্ছে,
এমন অসহায়ত্ব চেহারা দেখে জোন অধিনায়কের নির্দেশে দ্রুত দুই কক্ষ বিশিষ্ট এক টিনসেট ঘর নির্মাণ করে দেন ২৩ বিজিবি।
একইভাবে গত কয়েকদিন আগেও নিজস্ব দায়িত্বপূর্ণ এলাকার আইনশৃঙ্খলা পর্যবেক্ষণ করার জন্য জোন সদর থেকে তাইন্দং এলাকার দিকে যাওয়ার পথে তবলছড়ি গৌরাঙ্গ পাড়া মোড়ে রাস্তার পাশে অসহায় এক বৃদ্ধাকে(৮৫) বসে থাকতে দেখে গাড়ি থামিয়ে দ্রুত নেমে বৃদ্ধার পাশে বসে তার খোঁজখবর নেন যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল এ বি এম জাহিদুল করিম। উক্ত বৃদ্ধার সাথে কথাবার্তা জানতে পারেন যে এই বিধবা অসহায় বৃদ্ধা মহিলার দেখাশুনা করার কেউ নেই এবং ঔষধ ক্রয় করার মতো অর্থ টাকা ও ক্ষমতা নেই। পরবর্তীতে
অসহায় এই বৃদ্ধাকে ফার্মেসীতে নিয়ে ঔষধপত্র ও বিভিন্নরকমের খাদ্যসামগ্রী কিনে দেয়ার ব্যাবস্থা করেন।
পরবর্তীতে জোন অধিনায়ক উক্ত অসুস্থ বিধবা,অসহায় মহিলাকে উপস্থিত বিজিবি সদস্যদের সহয়তায় বাড়িতে পৌছানোর যাওয়ার ব্যবস্থা করে দেন এবং মাথাগোঁজার জন্য তার জীর্ণশীর্ণ ঘরটিকে সংস্কার করে বসবাসের জন্যে উপযুক্ত করে দেন।গৃহহীনদের জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্প ও বঙ্গবন্ধু জন্ম শতবর্ষপূর্তি পালন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী এতোএতো ঘর উপহার দিলেও ভাগ্যের নির্মম পরিহাস-সমাজপতি আর জনপ্রতিনিধিদের চোখে পড়েনি এই অসহায় দুর্বল বিধবার মহিলার জীর্ণশীর্ণ ঘরটি।
সকলের চোখের আড়াল হলেও মানবিক ও মানবতার ফেরিওয়ালা ২৩ বিজিবি’র অধিনায়কের কোমল হৃদয় নাড়া দিয়েছে এই অসহায় বৃদ্ধার করুন অবস্থা ও জীর্নশীর্ন ঘরটি দেখে। তাইতো পরেরদিন সকালেই জোন থেকে প্রতিনিধি পাঠিয়ে ঘর নির্মাণকাজের কি কি লাগবে খবর নেওয়ার জন্য এবং সাথে সাথেই প্রয়োজনীয় নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে মিস্ত্রীসহ টিম পাঠিয়ে অসহায় বিধবাকে বাকী জীবন শান্তিতে বসবাস করার জন্য সুন্দর একটি ঘর নির্মাণ করে দেন যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল এ বি এম জাহিদুল করিম।শুধু ঘর নির্মাণেই সীমাবদ্ধ না থেকে অসুস্থ বৃদ্ধাকে অধিনায়কের নির্দেশে জোন সদরের মেডিক্যাল রুমে নিয়ে এসে মেডিক্যাল টিম কর্তৃক যাবতীয় পরিক্ষা নিরিক্ষা করিয়ে বিনামূল্যে প্রয়োজনীয় ঔষধপত্র প্রদান করেন এবং
একইসাথে এই অসহায় বৃদ্ধা মহিলাকে পরবর্তীতেও বিনামূল্যে চিকিৎসা সহ ঔষধ সহায়তা ও খাদ্য সহয়তা দিবেন বলে জোন অধিনায়ক ঘোষনা দেন। এছাড়াও
জানা যায়,পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে এবং ঈদুল ফিতরের দিন বিভিন্নরকম সাহায্য সহযোগীতা রাস্তায় রাস্তায় ঘুরেঘুরে অসহায় মানুষের মাঝে পৌঁছে দিয়েছেন ২৩ বিজিবি যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল এ বি এম জাহিদুল করিম। একইভাবে জোন কমান্ডার নিজেই জোনের আওতাধীন তবলছড়ি, বড়নাল ও তাইন্দং ইউনিয়নের ২০০ শিশুকে শিশুখাদ্য ও ৪০০ পরিবারকে ঈদের দিন খাওয়ার জন্য সেমাই, চিনি,দুধ, এবং ঈদ উপহার হিসাবে শাড়ী ও লুংগি পৌঁছে দেন।
এম/এস

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com