রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৬ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

বান্দরবানে সেনা কর্মকর্তা হত্যার প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে নাগরিক পরিষদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • প্রকাশিত : বুধবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ১৬৬ জন পড়েছেন
বান্দরবানের রুমায় সেনা কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ। এ সময় জেএসএস মূল দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি সন্তু লারমাকে আইনের আওতায় এনে  বিচার দাবী করে জেলা পরিষদ আঞ্চলিক পরিষদের নির্বাচনের দাবী করেন বিক্ষোভ কারীরা।
বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় খাগড়াছড়িতে রুমা উপজেলায় সেনাবাহিনীর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমান হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়। এতে নেতৃত্ব দেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় মহাসচিব আলমগীর কবির। নেতৃত্ববৃন্দরা অভিযোগ করে কলেন, সন্তু লারমার গাড়ি থেকে জাতীয় পতাকা নামিয়ে তাকে বিচারের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। এসময় খাগড়াছড়িতে সন্তু লারমাকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করা হয়। একই সাথে জেলা পরিষদ, আঞ্চলিক পরিষদের নির্বাচন নিশ্চিত করণ এবং পার্বত্য এলাকায় সেনা ও পুলিশ ক্যাম্প পুনঃস্থাপন করে স্থায়ী ভাবে পাহাড়ে শান্তি ফিরিয়ে আনার দাবি করেন বিক্ষোভকারীরা।
পার্বত্য নাগরিক পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আবদুল মজিদের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় মহিলা পরিষদের সভানেত্রী সালমা আহমেদ মৌ, নাগরিক পরিষদের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের ভাইরাস চেয়ারম্যান আনিসুজ্জামান ডালিম, জেলা শাখার সহ-সভাপতি এস এম হেলাল, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক  ইঞ্জিনিয়ার মোঃ লোকমান হোসাইন, নাগরিক পরিষদ জেলা কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মো রবিউল ইসলাম।জেলা শাখার সহ-সভাপতি তাহেরুল ইসলাম সোহাগ প্রমুখ।
উল্লেখ্য, গত ২রা ফেব্রুয়ারি বান্দরবানের রুমা উপজেলার বথি ত্রিপুরা পাড়ায় সেনাবাহিনীর একটি টহল দলের ওপর জেএসএস (মূল দল)-এর সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা গুলিবর্ষণ করে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে সেনাবাহিনীর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমান নিহত ও একজন আহত হন। এ সময় আত্মরক্ষার্থে সেনাবাহিনী পাল্টা গুলি চালালে তিন সন্ত্রাসী নিহত হয়। সেনাবাহিনীর দাবি, নিহত সন্ত্রাসীরা জেএসএস মূল দলের সদস্য।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com