সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:৪১ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

দক্ষিণ আইচায় অন্যের জমি দখলের পায়তারা

হাসান লিটন, চরফ্যাসন প্রতিনিধি:
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১২২ জন পড়েছেন

চরফ্যাসন উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানা এলাকায় অন্যের জমি জোর পূর্বক দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত (২৩ জানুয়ারী) রবিবার সকালে দক্ষিণ আইচা থানার চরমানিকা ইউনিয়ন দক্ষিণ চর আইচা ৬ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগে ভুক্তভোগী আব্দুর রশিদ মিয়া জানান, দক্ষিণ চর আইচা মৌজার জেএল নং ১০২, এস এ খতিয়ান নং ১৪, এস এ দাগ ২০৪, দিয়ারা ও জমা খারিজ খতিয়ান নং ১৮৬১,২০৬২, দিয়ারা দাগ ২৯৪, এবং ২৯৬,২৯৭,২৯৮,২৯৯,৩০০,৩০১,৩০৩ দাগে, ২২ শতাংশ জমির ক্রয় ও রেকর্ড সূত্রে মালিক হয়ে ছালেহা বেগম বিদ্যামান ছিলো। তাহার নিকট থেকে গত (১৭ জানুয়ারী)২২ ইং তারিখে দক্ষিণ আইচা এস আর অফিসে রেজিস্ট্রারীকৃত ৩৫ নং ছাফ কবলা দলিল মূলে মালিক হন নুর নাহার বেগম। এতে নুর নাহার বেগম আমার স্ত্রী ওই জমির মালিক হয়ে ভোগ দখল করতে গেলে। হটাৎ করে একই এলাকার মো. বেল্লাল বদ্দি জমি দখলের পায়তারা করে। প্রতিপক্ষ বেল্লাল বদ্দি আমাদের ক্রয়কৃত জমিতে জোরপূর্বক জমি ও দখল করার চেষ্টা করে। এতে বাধা প্রদান করতে গেলে প্রতিপক্ষ বেল্লাল বদ্দি আমার পরিবারের সদস্যদেরকে বিভিন্ন অকথায় গালমন্দ করন সহ হামলা চালায়। এ সময় আমার পরিবারের সদস্যদের ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষ বেল্লাল বদ্দি পালিয়ে যায়। এ সময় আমার ছেলে দুলাল ও অভি আহত হলে দক্ষিণ আইচা পল্লী চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বেলাল বদ্দি তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,আমি একই দাগ ও খতিয়ানে ১৬ শতাংশ জমির ক্রয় সূত্রে মালিক তাই আমার জমিতে আমি দখলে আছি এবং এ ঘটনার ব্যাপারে গত (২৩ জানুয়ারী) সন্ধ্যায় দক্ষিণ আইচা থানায় আমাদের দু’পক্ষেরই বসাবসি হয়েছে। থানার ওসি বলেছেন যে যে অবস্থানে আছে সে সে অবস্থানে থাকবে। এর বাহিরে আর কোনো মন্তব্য করেন নাই বেল্লাল বদ্দি। এ বিষয়ে দক্ষিণ আইচা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.শাখাওয়াত হোসেন বলেন, একসপ্তাহের মধ্যে স্থানীয় সালিশ দ্বার ও সার্ভেয়ার দিয়ে মাফ মাপ জোপ করে দু’পক্ষের মধ্যে মীমাংসা করে দেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com