মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

কালিয়াকৈরে বাজারে বাড়ছে মানুষের ভিড় , মানা হচ্ছেনা স্বাস্হ্য বিধি

কালিয়াকৈর(গাজীপুর)প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৬ জুলাই, ২০২১
  • ১৮৮ জন পড়েছেন

সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধের ৫ম দিন সোমবার (২৬ জুলাই) গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ঢাকা-টাংগাইল মহাসড়কে তেমন কোনো যানবাহন ও মানুষের দেখা পাওয়া যায়নি।
তবে আঞ্চলিক সড়কে যানবাহন ও হাটবাজারে মানুষের ভিড় বেড়েছে। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কালিয়াকৈর বাইপাস, চন্দ্রা ত্রি-মোড়, সফিপুর ও মৌচাক পয়েন্টে পুলিশের তল্লাশিচৌকি থাকলেও মানুষ নানা অজুহাতে চলাফেরা করছেন।
সকাল থেকে বিকেল পয়ন্ত কালিয়াকৈর বাজার রোডে কাঁচাবাজারে গিয়ে দেখা গেছে, শত শত মানুষ গাদাগাদি করে কেনাকাটা করছেন। স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই, এমনকি অনেকের মুখে মাস্ক পর্যন্ত নেই।
একই অবস্থা দেখা গেছে সফিপুর বাজার, বলিয়াদী বাজার, টালাবহ বাজার,চান্দাবহ বাজারে। এছাড়া আঞ্চলিক সড়ক ও হাট-বাজারে লকডাউনের কোন পদক্ষেপ দেখা যায়নি।
কালিয়াকৈর বাসষ্ট্যান্ডে মনিরুজ্জামান বলেন, ফ্যামিলি নিয়ে আত্মীয়র বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছি, বাজার রোডে হিজলতলী এলাকার বছির উদ্দিন বলেন , বাড়িতে যে পরিমাণ বাজার ছিল, তা এরই মধ্যে শেষ হয়ে গেছে। তাই আজ সবজি আর কিছু মাছ কিনতে এসেছি।’কালিয়াকৈর বাজারে ফজলু মিয়াকে মাস্ক পরেননি কেন? জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাসা থেকে বের হওয়ার সময় ভুলে গেছি। কালিয়াকৈরে পুলিশের বিষেশ অভিযানের পর পুলিশ চলে যাওয়ার পর পূণরায় দোকানের সাঁটার খুলে ব্যবসা পরিচালা করছে।
অপর দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় যাত্রীবাহী পরিবহন না থাকলেও ট্রাক, পিকআপ ও অটোরিকশাগুলো মহাসড়ক দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। মহাসড়কে পুলিশের চেকপোস্ট ফাঁকি দিয়ে নানা অজুহাত দেখিয়ে মানুষ ঢাকায় ঢোকার চেষ্টা করছেন। এ কারণে মানুষের চলাচলও বেড়ে গেছে। বেশির ভাগই বলছে চাকরি বাঁচাতে ঢাকা,গাজীপুর,কোনাবাড়ি ও সাভার তাঁদের যেতেই হবে। ঢাকা-টাংগাইল মহাসড়কে চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় পণ্যবাহী ট্রাক, ছোট ছোট যানবাহনসহ মোটরসাইকেলের সংখ্যা বেড়েছে। তবে রিকশা চলাচল বন্ধ করতে প্রতিদিনই রিকশা আটক করা হচ্ছে। তারপরও অটো-রিক্সা -ইজিবাইক আর মোটরসাইকেল চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com