শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ০৬:৫৩ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

মিথ্যা মামলা থেকে সাংবাদিক কবির শাহ দুলালের অব্যাহতি লাভ

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪৮৬ জন পড়েছেন

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম জেলার সাহসী এক সাংবাদিকের নাম মোহাম্মদ নুরুল কবির দুলাল।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যার সুনাম যশ খ্যাতি কবির শাহ্ দুলাল নামে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সামাজিক অবক্ষয়,দুর্নীতি অন্যায় অবিচার দৈনিক,অনলাইন ও লাইভ ভিডিও দিয়ে সফল হলে কিছু দুষ্কৃতিকারী ক্ষেপে গিয়ে তার বাড়িতে হামলা করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়।তার ব্যক্তিগত গাড়িতে হামলা করা হয়।মিথ্যা মামলা করিয়ে সীতাকুণ্ড ছাড়াও চট্টগ্রাম কোর্ট বিল্ডিং এরিয়াতে পোস্টার ব্যানার ও লিপলেট টানানো ও বিলানো হয়।মোটামুটি সাংবাদিক কবির শাহ দুলালের মানহানি করার জন্য সকল কিছুই করেছেন।সাংবাদিক কবির শাহ দুলাল দেশের জনপ্রিয় ও সময়ের সাহসী অনলাইন পোর্টাল বিডি ক্রাইম নিউজ ডটকম এর সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে দারুণ সুনাম কুড়িয়েছেন।তাছাড়া জাতীয় দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র পত্রিকায় বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করে চলেছেন।

সূত্রে জানা যায়, সীতাকুণ্ডের কিছু খারাপ প্রকৃতির লোকসহ মিলে দুজনকে বাদী করে মামলা করে সীতাকুণ্ড ১৪/০৩/২০১৯ ইং ও সিআর মামলা নং ৪৫৩/২০১৯ দীর্ঘ সময় পর সীতাকুণ্ড মডেল থানার পুলিশ চূড়ান্ত রিপোর্ট দেয় যা চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তা গ্রহন করেন।

এ বিষয়ে সাংবাদিক কবির শাহ্ দুলাল বলেন,কাজ করে চলেছি প্রশাসন ও সরকারের ভালো উদ্যোগ ও কাজ তুলে ধরি এটাই নাকি আমার অপরাধ। তিনি আরো বলেন,সীতাকুণ্ড মডেল থানার সাবেক ওসি দেলোয়ার হোসেন আমাকে থানায় ডেকে নিয়ে সাংবাদিকতা করা যাবেনা বলে হুমকি দেয়।ওসি দেলোয়ার ৩শত টাকা দামের ষ্ট্যাম্প লিখে রাখে,আমাকে স্বাক্ষর করতে হবে জীবনে কখনো সাংবাদিকতা করা যাবে না।যদিও আমি স্বাক্ষর করিনি ঐ রাতের সকল কর্মকান্ড গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা আছে।কবির শাহ দুলাল আরো বলেন ,সাংবাদিকতা পেশায়,এসেছি চার বছর শেষে পাঁচ বছর হলো।অনেক কাজ করেছি।যার কারণে অনেক শত্রুর জন্ম হয়েছে।তারপরও আল্লাহ সহায়।সত্যি কখনোই লুকানো যায় না।যারা আমাকে মনোবল চাঙ্গা রাখতে ভূমিকা রেখেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা।জাতীয় দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র পত্রিকার সাংবাদিক বান্ধব সম্পাদক এড.রাসেদ উদ্দিনের প্রতিও কৃতজ্ঞ।বিনে পয়সায় আইনি সহায়তা দেয়া এড.মোহাম্মদ মিজান,এড.নোমান,এড.তৌফিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

সবশেষে,কবির শাহ দুলাল বলেন,সাংবাদিক মেজবাহ খালেদ,সাংবাদিক আলাউদ্দিন,সাংবাদিক অপু, সাংবাদিক আব্দুল খালেক,সাংবাদিক ইমন,সাংবাদিক সাদ্দাম,সাংবাদিক কেএম রুবেল,সাংবাদিক রুবেলসহ নাম অজানা সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা। সাংবাদিক কবির শাহ দুলাল মামলার বাদী ও সকল সহযোগীদের ক্ষমা করে দিয়েছেন।যদিও মিথ্যা মামলা করায় ২১১ ধারায় তাদের প্রতি আইনি ব্যবস্থা নেয়া যায়।

জয় হয়েছে সত্যের, জয় হয়েছে সৎ সাংবাদিকের।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com