বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

সংক্রমণে ভারতের বিশ্ব রেকর্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • প্রকাশিত : সোমবার, ৩১ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৮৮ জন পড়েছেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মরণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ভারতে বেড়েই চলছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে যত করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে, তা একদিনে আক্রান্তের ক্ষেত্রে বিশ্বে রেকর্ড। এই সময়ে ভারতে ৭৮ হাজার ৭৬১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবের পর বিশ্বে একদিনে এটিই সর্বোচ্চ শনাক্ত।

রোববার সকালে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে যে তথ্য জানানো হয়েছে, তা থেকে বিষয়টি জানা যায়।

প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টার ৭৮ হাজার ৭৬১ জনকে নিয়ে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৩৫ লাখ ৪২ হাজার ৭৩৩ জন। সংক্রমণের নিরিখে ভারত এখন বিশ্বে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। তবে দ্বিতীয় স্থানে ব্রাজিলের প্রায় কাছাকাছি চলে এসেছে দেশটি।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো ৯৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভারতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৬৩ হাজার ৪৯৮ জন। এই মুহূর্তে দেশটি মৃত্যুর হার প্রায় ১ দশমিক ৮১ শতাংশ।

তবে দেশটিতে করোনা রোগীর সুস্থতার হার বেশ উল্লেখযোগ্য। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২৭ লাখ ১৩ হাজার ৯৩৪ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন প্রায় ৬৫ হাজার। এর ফলে দেশটিতে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৩০২ জন।

ভারতে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত রয়েছে মহারাষ্ট্র রাজ্য। দেশটিতে আক্রান্তদের মধ্যে সাড়ে ৭ লাখের বেশি এই রাজ্যের। আর রাজ্যটিতে মৃত্যু হয়েছে ২৪ হাজার ১০৩ জনের। এ তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু। রাজ্যটিতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ১৫ হাজার ৫৯০ জন। এ ছাড়া ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ১৩৭ জনের। এ ছাড়া তালিকার পরবর্তী অবস্থানে উল্লেখযোগ্য রাজ্যের মধ্যে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্ণাটক, উত্তর প্রদেশ ও দিল্লি।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com