মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৪৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

নিজেদের স্বার্থে দলকে ব্যবহার করছেন বিএনপির সিনিয়ররা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০
  • ২৫২ জন পড়েছেন

ডেস্ক রিপোর্ট: খালেদাপন্থী হিসেবে পরিচিত রাজনৈতিক নেতাদের কোণঠাসা করে হাইব্রিড ও ব্যবসায়ীদের দিয়ে পরিচালিত হচ্ছে বিএনপি। টাকার বিনিময়ে দলের ক্ষমতা তুলে দেয়া হয়েছে ব্যবসায়ীদের হাতে। এক সময়ের বিএনপির একাধিক শীর্ষ ও প্রভাবশালী নেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমনটাই জানা গেছে।
বিএনপির রাজনীতিতে সিনিয়ররা আজ নিষ্ক্রিয় কেন জানতে চাইলে তারা বলেন, খালেদা জিয়া জেলে থাকা অবস্থায় খালেদাপন্থী হিসেবে পরিচিত বিএনপির নেতাদের কোণঠাসা করে রাখা হয়েছিল এবং তাদের দলে কোনো ভূমিকা ছিল না।

তারা বলেন, এই সময় আমরা দেখেছি অনেক নেতাই খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেননি। নির্বাচনের সময়ও এসব নেতৃবৃন্দ সঠিকভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করেননি বরং শুরু থেকেই হেরে যাওয়ার জন্য নির্বাচন করেছেন। যার ফলে বিএনপির আজ এই পরিস্থিতি।

বিএনপির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র থেকে জানা গেছে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এম মোরশেদ খানের মতো সিনিয়র নেতারা আজ নীরব। তারা নিজের স্বার্থে বিএনপিকে ব্যবহার করে। নিজেদের ব্যবসা-বণিজ্য রক্ষায় ব্যস্ত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সময়ের বিএনপির শীর্ষ ও ত্যাগী নেতা বলেন, ব্যবসায়ীদের কাছে আজ আমরা হেরে গেছি। টাকার কাছে দল বিক্রি হয়ে গেছে। বিএনপির রাজনীতি এখন রাজনীতিকদের হাতে নেই। দলের ক্ষমতা তুলে দেয়া হয়েছে ব্যবসায়ীদের হাতে। তারা তাদের নিজেদের স্বার্থে বিএনপিকে ব্যবহার করছে।

তিনি আরো বলেন, ভেবেছিলাম ম্যাডাম কারামুক্ত হয়ে আমাদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন। দলের পরিস্থিতি উন্নয়নে আবারো উদ্যোগী ভূমিকা গ্রহণ করবেন। কিন্তু সেই আশায় একেবারেই গুড়েবালি। আমরা এখন প্রতিনিয়ত হতাশায় নিমজ্জিত হচ্ছি। দলের কার্যক্রমে এখন মনে হয় রাজনীতি ছেড়ে দিই। সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com