শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

হ্যাঁ, এলাকা আমার, খবর আমার, পত্রিকা আমার। সাফল্যের ২ বছর শেষে ৩ তম বছরে দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সবচেয়ে বেশি স্থানীয় সংস্করন নিয়ে "দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ" বিশ্লেষন আমাদের, সিদ্ধান্ত আপনার। দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ পত্রিকায় শুন্য পদে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। আপনার এলাকায় শুন্য পদ রয়েছে কিনা জানতে কল করুনঃ 01647627526 অথবা ইনবক্স করুন আমাদের পেইজে। ভিজিট করুনঃ parbattakantho.com দৈনিক পার্বত্য কন্ঠ। সত্য প্রকাশে সাহসী যোদ্ধা আমরা নতুন বাংলাদেশ গড়বো

খাগড়াছড়িতে চেক প্রত্যাখ্যানের ২ মামলায় ব্যবসায়ী কারাগারে

নিজস্ব সংবাদদাতা 
  • প্রকাশিত : সোমবার, ১০ আগস্ট, ২০২০
  • ৫১৭ জন পড়েছেন

নিজস্ব সংবাদদাতা 

খাগড়াছড়িতে চেক প্রত্যাখানের দুটি মামলায় ইটভাটা ব্যবসায়ী মো. সানাউল্লাহ্ ওরফে সালাউদ্দিন মাঝি (৫১) -কে পৃথক পৃথক সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। রবিবার দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা যুগ্ন ও দায়রা জজ মো. খোরশেদ আলমের আদালত ব্যবসায়ী আবদুস সালাম -এর ৪৫ লাখ টাকার চেকের বিপরীতে দায়ের করা মামলায় ২৭ লাখ টাকা জরিমানা ও ১ বছরের সাজা প্রদান করেন।

এর আগে চলতি বছরের ৯-ই ফেব্রুয়ারী স্কুল শিক্ষক মো. মিল্লাত হোসেনের ১৪ লাখ টাকার চেকের বিপরীতে দায়ের করা মামলায় একই আদালত ব্যবসায়ী মো. সানাউল্লাহ্-কে ১০ লাখ টাকা জরিমানা ও ১ বছরের সাজা প্রদান করেন। তবে করোনাকালীন জটিলতায় আদালত বন্ধ থাকার ফলে এতোদিন তাকে ওই মামলায় কারাগারে যেতে হয়নি। রবিবার ব্যবসায়ী আবদুস সালাম –এর দায়ের করা মামলার রায়ের তারিখ ধার্য্য ছিলো। এই দিন তিনি আদালতে হাজির হলে আদালত আসামীর উপস্থিতিতে মামলার রায় ঘোষণা করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট বেদারুল ইসলাম জানান, ‘ব্যবসায়িক লেনদেনের সূত্র ধরে আমার মক্কেল মো. আবদুস সালাম-কে গত ২০১৭ সালের ৩০-শে মে প্রাপ্য টাকা নির্দিষ্ট সময়ে পরিশোধের শর্তে ৪৫ লাখ টাকার একটি চেক দেন খাগড়াছড়ি শহরের শব্দমিয়া এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী মো. সানাউল্লাহ্। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ব্যাংকে টাকা জমা না হওয়ায় প্রাপক মো. আবদুস সালাম একই বছরের ১৯-শে জুলাই আদালতে চেক প্রত্যাখ্যানের একটি মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আসামি হন মো. সানাউল্লাহ্। প্রায় তিন বছর পর রবিবার ওই মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে’।

মামলার বাদী ব্যবসায়ী আবদুস সালাম জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরে তিনি আমার সাথে প্রতারণা করে আসছিলেন। একপর্যায়ে আমি তার বিরুদ্ধে মামলাটি করতে বাধ্য হই। শুধু যে আমার সাথেই এমনটি হয়েছে তা নয়, তার বিরুদ্ধে খাগড়াছড়ি আদালতে এরকম চেক প্রত্যাখানের আরও দুটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে’।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই পোর্টালের কোনো খেলা বা ছবি ব্যাবহার দন্ডনীয় অপরাধ।
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
iitbazar.com