• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে কাপ্তাইয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত দেশের মানুষের সুরক্ষায় সার্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করেছে সরকার….নাজমুন আরা সুলতানা লামায় চাম্পাতলী বৌদ্ধ বিহারের চেরাং ঘর আগুনে পুড়ে গেছে রামগড়ে হত্যা মামলা আসামি ২৩ বছর পর গ্রেফতার মহেশখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৫ জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল ৫ দিনের ছুটি শেষে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু বেনাপোল বন্দরে যশোর শার্শার বেলতলা বাজারে গুটি আম বেচাকেনা শুরু রাঙ্গামাটির রাজস্থলীতে দুই ইউপি সদস্য ৯ দিন ধরে নিখোঁজ রামগড় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যেগে,শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ

গুইমারায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে

স্টাফ রির্পোটারঃ / ১৭৩ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : সোমবার, ৩০ মে, ২০২২

খাগড়াছড়ির গুইমারা মুসলিম পাড়া এলাকার জমাদার পাড়ায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ স্থানীয় আবু তাহেরর পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পের একটি ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন,গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তুষার আহমেদ।

রবিবার বিকালে গুইমারা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্মল নারায়ন ত্রিপুরা,উপজেলা ভূমি অফিসের দায়িত্বরত কর্মকর্তা,স্থানীয় ইউপি সদস্য দিদারুল আলম সহ স্বরজমিনে তদন্ত পূর্বক ঘরটি বরাদ্দ দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার তুষার আহমেদ।

এর আগে গুইমারা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ওই পরিবারকে মানবিক সহায়তা হিসেবে চারবান টিন ও নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

ঘরটি বরাদ্দ পেয়ে আবু তাহের বলেন, আগুনে তার সব শেষ হয়ে গেছিলো।উপজেলা নির্বাহী অফিসার মানবিক ভাবে তাকে টিন,নগদ সহায়তা দিয়ে তার পরিবারটিকে বেচে থাকার অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন।এবার প্রধানমন্ত্রীর উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পের একটি ঘর বরাদ্দ দিয়ে পরিপূর্ণভাবে বসবাসের জন্য তার পরিবারকে সহযোগিতা করেছেন। এজন্য তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রী ও উপজেলা প্রশাসনের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্মল নারায়ন ত্রিপুরা বলেন,অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থের পর ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে কম্বল সহ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মানবিক ভাবে বিভিন্ন সহযোগিতা দেওয়া হয়েছে।এবার উপজেলা প্রশাসন নিজ উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পের একটি ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন।
এম/এস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ