• সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঢাবিতে ভর্তিচ্ছুকদের জন্য ধারাবাহিকভাবে পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদ পিসিসিপি’র ‘হেল্প ডেস্ক’ সঠিক তথ্যে ভোটার হয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে ভুমিকা রাখতে হবে…ডেজী চক্রবর্তী মাটিরাঙায় জাতীয় বীমা দিবস উদযাপন জাতীয় বীমা দিবসে মানিকছড়িতে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা ১নং কবাখালী সপ্রাবিতে পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এনায়েতপুরে মেয়েকে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় সাংবাদিককে মারধর, কিশোর গ্যাংয়ের লিডার সহ ৪ জন আটক বাঘাইহাট দারুল আরকাম ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে পোশাক ও বার্ষিক ক্রীড়া পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত গুইমারাতে সেনাবাহিনীর মানবিক সহায়তা প্রদান কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোনের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ আলীকদমে একুশে বই মেলায় বীর বাহাদুর এমপি

রাঙ্গামাটি জেলার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হলেন মোমিনুল হক

মোঃ আলমগীর হোসেন ,লংগদু (রাঙ্গামাটি) / ২৫৭ জন পড়েছেন
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

মোঃ আলমগীর হোসেন, লংগদু (রাঙ্গামাটি)

রাঙ্গামাটি জেলার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক (প্রাথমিক বিদ্যালয়) নির্বাচিত হলেন লংগদু উপজেলার উগলছড়ি মহাজন পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মোমিনুল হক।

জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগীতা ২০২৩ উপলক্ষে ১৪ সেপ্টেম্বর রাঙ্গামাটি জেলা শিক্ষা অফিস ও রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ যাচাই বাচাই শেষে জেলার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক (প্রাথমিক বিদ্যালয়) মনোনীত হন মোমিনুল হক।
এর আগে ১০সেপ্টেম্বর উপজেলা পর্যায়ে ও তিনি উপজেলা শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হন।
এছাড়া ২০১২সালে তিনি রাঙ্গামাটি জেলার শ্রেষ্ঠ কাব শিক্ষক হিসেবে মনোনীত হয়েছিলেন।

এবিষয়ে প্রধান শিক্ষক মো. মোমিনুল হক বলেন, ‘আজকের এ সাফল্যে আমি অনেক আনন্দিত। আমি আমার বিদ্যালয়কে নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখি। আমার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাফল্যও আমাকে আনন্দিত করে। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর পড়াশোনার পাশাপাশি কো-কারিকুলার এক্টিভিটিসেও ভালো কিছুর জন্য চেষ্টা করছি।

তিনি আরও বলেন, “আমার এ প্রাপ্তি আমার একার না। এ প্রাপ্তি পরিচালনা কমিটির সকল সদস্য, শিক্ষক শিক্ষার্থী, কর্মচারী সবার। আমার বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সকল সদস্যগণ সবসময়ই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন। সকলে শিক্ষা বান্ধব হওয়ায় বিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন।’ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমার এ অর্জন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ উপজেলাবাসীর জন্য উৎসর্গ করলাম।

স্থানীয় অভিভাবকরা জানান মোমিনুল হোক প্রধান শিক্ষক হিসেব আসার পর থেকে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা শিক্ষা, সাংস্কৃতিকসহ বিভিন্ন বিষয় অত্যন্ত সুনামের স্বাক্ষর রাখছেন। তিনি বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান উন্নয়নসহ পারিপার্শ্বিক বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন।

তার নেতৃত্বে বিদ্যালয়টি উপজেলার অন্যতম একটি বিদ্যালয়ে পরিণত হয়েছে। সুসজ্জিত ভবন ও শ্রেণিকক্ষ, পরিপাটি অফিস, নিয়মিত পাঠদানের পাশাপাশি সংস্কৃতি চর্চা ও ক্রীড়াঙ্গনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন।

উল্লেখ্য যে মোমিন হক ২০০৩ সালে সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ২০১৮ সালে পদোন্নতি হয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ